কলকাতার পর রাজ্যে আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার দ্বিতীয় সার্কেল অফিস হবে রায়গঞ্জে। দেশের পর্যটন ও সংস্কৃতি মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিংহ প্যাটেলের ট্যুইট থেকে এ খবর জানা গিয়েছে। জেলার ইতিহাস গবেষণার সাথে যুক্ত ছাত্র-ছাত্রী, প্রত্নতত্ত্ব গবেষক ও অধ্যাপক, অধ্যাপিকাদের মধ্যে এই খবরে খুশির হাওয়া ছড়িয়েছে।

কলকাতার পর রাজ্যের মধ্যে দ্বিতীয় আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার সার্কেল দপ্তর হতে চলেছে রায়গঞ্জে। সূত্রের খবর, খুব শীঘ্রই এই দপ্তর নির্মাণের কাজ শুরু হবে রায়গঞ্জে। রায়গঞ্জ কে বেছে নেওয়ার কারণ মনে করা হচ্ছে রায়গঞ্জ সহ উত্তর দিনাজপুর জেলা জুড়েই নানান সময়ে বিভিন্ন প্রত্নতত্ত্ব নিদর্শন মাটি খননের সময় উঠে এসেছে। শুধু উত্তর দিনাজপুর জেলাতেই নয়, উত্তরবঙ্গের ইতিহাস গবেষকরা জানাচ্ছেন, সমগ্র উত্তরবঙ্গ জুড়েই মাটির নীচে লুকিয়ে রয়েছে প্রত্নতত্ত্বের নানান নিদর্শন। তবে পরিকাঠামোর অভাবে বেশিরভাগই এখনও অনাবিষ্কৃত। প্রত্নতাত্ত্বিক পর্যবেক্ষণের সার্কেল অফিস স্থাপন হলে অনেক অজানা তথ্য উঠে আসবে বলে মনে করছেন তাঁরা।

উত্তর দিনাজপুর জেলায় ইতিমধ্যে এই জেলায় জেলা সংগ্রহালয় গড়ে উঠেছে কর্ণ জোড়া অঞ্চলে। ৬ টি ঐতিহাসিক সৌধকে হেরিটেজ সংস্কার করেছে। গত ডিসেম্বর মাসে রাজ্য প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ এই জেলার ৬১ টি ঐতিহাসিক স্থান সমীক্ষা করেছে। এবার জেলায় ভারতীয় পু্রাতত্ত্ব বিভাগের একটি সার্কেল অফিস খোলা হলে উত্তর দিনাজপুর জেলা সহ উত্তর বঙ্গে ঐতিহাসিক গবেষণা অনেক গতি পাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

47