নবম শ্রেণীর ছাত্রী গত তেরো দিন থেকে নিখোঁজ ছিলো ঘটনাটি রাজগঞ্জ থানা এলাকার, নিখোঁজ ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জানানো হয়েছিলো। এর পর নিখোঁজ ছাত্রীর বাড়ির একটি মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে পুলিশ তদন্ত শুরু করলে উদ্ঘাটিত হয় এক নৃশংস হত্যার ঘটনা। পুলিশ সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী তেরো দিন নিখোঁজ ছাত্রীটিকে ফোন করে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিলো এলাকার যুবক রহমান আলী এবং জামিরুল হক নামে দুই যুবক।

ঘটনার প্রমান লোপাটের জন্য ধর্ষণের পর ছাত্রীর দেহটি একটি সেপ্টি ট্যাংক এর মধ্যে ফেলে দেয়, মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে এই ঘটনায় গ্রেফতার এর রহমান আলী, জামিরুল হক এবং তারিমুল হক নামের তিন যুবক।

শুক্রবার জলপাইগুড়ি জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে, পুলিশি হেফাজতের আবেদন সহ, অপরদিকে এই ঘটনায় বিক্ষোভে ফেটে পরেছে এলাকার মানুষ, রাজগঞ্জ থানার সামনে চলছে অপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ।

29