২১/৮/২০২০,ওয়েবডেস্কঃকরোনা প্রতিরোধের জন্য সরঞ্জাম কেনার ক্ষেত্রে দুর্নীতি হয়েছে বলে রাজ্য রাজনীতিতে গুঞ্জন চলছে। আর এবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় শুক্রবার সকালে টুইট করে অভিযোগ করলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের মহামারী ক্রয়ে কোটি কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে। এ ব্যাপারে শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি তুলেছেন তিনি। 

গতকাল থেকেই এই বিষয় নিয়ে সরব হয়েছেন রাজ্যপাল। বৃহস্পতিবার রাতে টুইটও করেছিলেন । তবে স্পষ্ট করে কারও নাম না করলেও রাজ্যপাল বোঝাতে চেয়েছেন, দুর্নীতি করে সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হয়েছে একজনকে।

একুশে বিধানসভা ভোট । তার আগে করোনার সরঞ্জাম কেনা নিয়ে রাজ্যপাল যে দুর্নীতির দিকে এদিন আঙুল তুলেছেন তা গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

তৃণমূল অবশ্য রাজ্যপালকে বিজেপির মুখপাত্র বলে বারবার মন্তব্য করেছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বলেছেন, উমফানের ত্রাণ বিলিতে এক আধটা যে ঘটনা ঘটেছে তাকেই ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে দেখানো হচ্ছে।

পর্যবেক্ষকদের একাংশের মতে, রাজ্যপালের রাজনৈতিক এজেন্ডা যদি বা থেকেও থাকে, অভিযোগগুলিকে ভ্রান্ত প্রমাণ করতে পারছে না শাসক দল। করোনা শুরুর পর্বে লকডাউন শুরু হতেই যে রেশন দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল তা নিয়ে পরে সরকারকে ব্যবস্থা নিতে দেখা গিয়েছে। উমফানের দুর্নীতির ঘটনাও বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এখন করোনার সরঞ্জাম কেনা নিয়ে সত্যিই দুর্নীতি হয়ে থাকলে সরকারের অস্বস্তির অন্ত থাকবে না।

25