১৮/৮/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ খেলার প্রতি ভালোবাসা না খেলোয়ারের প্রতি ভালোবাসা তাকে মাঠে টেনে আনতো তা হয়তো এখন পরিষ্কার। বশির চাচার নাম হয়তো সকলেই শুনেছেন। জন্ম সূত্রে পাকিস্থানি বশির চাচা ভারতের বিখ্যাত ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিং ধোনির একনিষ্ঠ ভক্ত। শুধুমাত্র ধোনির খেলা দেখার জন্যই তিনি খেলার মাঠে গ্যালারিতে ছুটে যেতেন। গত পনেরোই আগস্ট মহেন্দ্র সিং ধোনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করেছেন। আর তারপরেই বশির চাচাও জানিয়ে দিলেন তিনিও গ্যালারিতে যাওয়া থেকে অবসর নিলেন। তিনি আর মাঠে দৌড়ে যাবেন না ভারত পাকিস্তানের খেলা দেখতে। তার প্রিয় খেলোয়াড় মহেন্দ্র সিং ধোনি যে আর মাঠে খেলতে নামবেন না।

করাচিতে জন্মগ্রহণ করলেও মহম্মদ বশির থাকেন শিকাগোতে।  সেখানে একটি রেস্তোরাঁ চালান তিনি।  তবে পাকিস্তানের ম্যাচ থাকলেই গ্যালারিতে তাঁকে দেখা যায়। এই বশির চাচা আবার মহেন্দ্র সিং ধোনির বিরাট ভক্ত। পাকিস্তানি ফ্যান হলেও ধোনির জন্য তিনি ছুটে যেতেন মাঠে। এমনকী মাহির জন্য গলা ফাটাতে তিনি। বশির চাচা ঠিক করে ফেলেছেন করোনা দূর হলে রাঁচি গিয়ে ধোনিকে শুভেচ্ছা জানাবেন। তিনি বলেন, ” ধোনি যখন অবসর নিয়ে নিল, তখন আমিও আর খেলা দেখার জন্য কোথাও যাব না।”

বশির চাচা আরও বলেন, “সবাইকে একদিন সরে যেতে হয়, কিন্তু ধোনির অবসর আমাকে খুব দুঃখ দিয়েছে।  ওকে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া উচিত ছিল।” ২০১১ বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে মোহালিতে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দেখতে গিয়েছিলেন বশির চাচা।  কিন্তু টিকিট পাননি।  ৬৫ বছরের ক্রিকেটভক্তকে সেদিন টিকিট জোগাড় করে দিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি।  শুধু তাই নয়, ২০১৯ বিশ্বকাপেও ধোনি টিকিটের ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন বশির চাচার জন্য।  ২০১৮ সালে এশিয়া কাপ চলাকালীন ধোনি তাঁর হোটেল রুমে বশির চাচাকে ডেকে তাঁর একটা জার্সি উপহার হিসেবে দিয়েছিলেন। সেকথাও এদিন স্মৃতিচারণাতে বলেন বশির চাচা।

33