বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন আত্মপ্রকাশ করলো রাশিয়ার হাত ধরে। গতকাল ১০ই আগস্ট বিশ্বে প্রথম দেশ হিসেবে রাশিয়া করোনা ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন করালো।রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আজ এই ঘোষণা করেছেন। তিনি আরও জানিয়েছেন যে তার দুই কন্যা মারিয়া পুতিন ও ইয়েকাটেরিনা পুতিন এর মধ্যে একজন এই টিকা নিয়েছেন। এর আগে বলা হয়েছিল প্রথমে এই টিকা চিকিৎসক ও শিক্ষকদের কে দেওয়া হবে তারপর রাশিয়ার সব মানুষের মধ্যে এই টিকাকরন করা হবে। তার ফলে করোনার বিরুদ্ধে হার্ড ইমিউনিটি গড়ে তোলা হবে। যার খরচ সম্পুর্ণ বহন করবে সরকার।

প্রেসিডেন্ট পুতিন এর দুই কন্যা

গামালিয়া গবেষণা ইনস্টিটিউট এবং রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় যৌথভাবে তৈরি এই ভ্যাকসিনটিতে দুটি পৃথক-ইনজেকশন উপাদান রয়েছে যা একসাথে ভাইরাসের বিরুদ্ধে দীর্ঘমেয়াদী অনাক্রম্যতা বাড়ানোর আশা করে।
এই ভ্যাকসিনের ক্লিনিকাল ট্রায়ালগুলি ১৮ জুন শুরু হয়েছিল এবং এতে ৩৮ জন স্বেচ্ছাসেবক অন্তর্ভুক্ত ছিল। প্রথম গ্রুপটি ১৫ই জুলাই, দ্বিতীয় গ্রুপ ২০শে জুলাই থেকে অব্যাহতি পেয়েছিল। এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল সম্পূর্ণ সফল বলে আগেই দাবি করা হয়েছে।
১১ ই মার্চ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা(WHO) নভেল করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রাদুর্ভাবকে মহামারী হিসাবে ঘোষণা করেছে। সর্বশেষ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুসারে, ইতিমধ্যে বিশ্বে দুই কোটিরও বেশি সংখ্যক কোভিড – ২ রোগী চিহ্নিত হয়েছে এবং সাত লাখ পঞ্চাশ হাজার মানুষ এই রোগে মারা গিয়েছেন।

36