করোনা আক্রান্ত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। নিজেই টুইট করে সেকথা জানিয়েছেন তিনি। ইতিমধ্যেই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দিল্লির আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল চিকিৎসাধীন আছেন তিনি। হাসপাতাল সূত্রে খবর, তাঁর মস্তিষ্কে এক জায়গায় রক্ত জমাট বেঁধে ছিল।

ক্লটের জন্য সোমবার মস্তিষ্কে জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয়েছে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের। এদিন নয়াদিল্লির আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফেরাল হাসপাতালে তাঁর ব্রেন সার্জারি হয়। সেটি সফল হয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। ৯৬ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। সারা দেশ মানুষ তাঁর দ্রুত আরোগ্যকামনা করেছে।

প্রসঙ্গত এদিন সকালে টেস্টের জন্য দিল্লির আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফেরাল হাসপাতালে যান প্রণব মুখোপাধ্যায়। ২০০৪ সালে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর হওয়ার পর চিকিৎসার জন্য এই হাসপাতালই প্রথম পছন্দ তাঁর। নিয়ম মাফিক টেস্টের সময় প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির করোনা ধরা পড়ে। প্রণববাবু স্বয়ং ট্যুইট করে সে কথা জানান। এদিকে, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধায় সমস্ত সতর্কতা নিয়ে এদিনই সার্জারির সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। সেটি সফল হয়েছে। এমনই জানিয়েছে সংবাদসংস্থা পিটিআই।

করোনা সংক্রমণের পর থেকে নিজেকে কার্যত গৃহবন্দি করেছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। দিল্লির রাজাজি মার্গের বাসভবনে সমস্ত জমায়েত বন্ধ করে দিয়েছেন। মাত্র হাতে গোনা কিছু ব্যক্তির সঙ্গে সাক্ষাৎ করছেন। তার পরেও করোনা শনাক্ত হওয়ায় গত কয়েকদিনে তাঁর সংস্পর্শে আসা সবাইকে আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। আর করোনা পরীক্ষাও করিয়ে নিতে অনুরোধ করেছেন।
প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির ট্যুইট, ‘অন্য একটি চিকিত্‍‌সার জন্য হাসপাতালে গিয়ে আজ আমার কোভিড-১৯ পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। গত সপ্তাহে যাঁরা আমার সংস্পর্শে এসেছেন, তাঁদের কাছে অনুরোধ করছি যেন তাঁরা নিজেদের আইসোলেশনে রাখেন এবং কোভিড ১৯ পরীক্ষা করিয়ে নেন।’

21