৯/৮/২০২০,ওয়েবডেস্কঃউগ্র হিন্দুত্ববাদীদের রমরমা দেশে এখন একটু বেশিই দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। মাঝখানে কিছুটা কমলেও রামমন্দিরের শিলান্যাসের পর থেকে ফের দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ফের শুরু হয়েছে এই ধরণের ঘটনা। কদিন আগেই গুরগাঁওয়ের পর এবার একই ধরণের ঘটনার সাক্ষী রইলো রাজস্থানের শিকার।

জয় শ্রীরাম, মোদি জিন্দাবাদ বলতে অস্বীকার করেছিলেন রাজস্থানের সিকার জেলার এক অটো চালক। এরপরই তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়। ভেঙে দেওয়া হয় একাধিক দাঁত। গুরুতর চোট পান ওই প্রৌঢ়। পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন আক্রান্ত অটো চালক গফফর আহমেদ কাচওয়া। তাঁকে মারধরের অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে রাজস্থান পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাজস্থানের শিকর জেলায়। আক্রান্ত গাফফার আহমেদ কাছওয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে শম্ভুদয়াল জাট ও রাজেন্দ্র জাট নামে ২ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযোগ, মারধরের পর অটোচালকের টাকা ও হাতঘড়িও নিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা।

কাছওয়ার ভাগ্নে শাহিদ জানিয়েছেন, শুক্রবার ভোর ৪ টে নাগাদ যাত্রী নামিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তাঁর মামা। তখনই দুই ব্যক্তি মামার অটো থামিয়ে খইনি চায়। কিন্তু তারা খইনি না নিয়ে মামাকে মোদি জিন্দাবাদ বলতে বলে। তা বলতে অস্বীকার করলে মামাকে তারা থাপ্পড় মারে।

কাছওয়া এফআইআরে উল্লেখ করেছেন, সেই সময় নিজের অটো নিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু দুষ্কৃতীরা তাঁর পিছু নেয়। জগমলপুরার কাছে অটো থামিয়ে অটো থেকে তাঁকে জোর করে নামিয়ে ‘মোদি জিন্দাবাদ’, ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে বলে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মার মারে। মারের চোটে তাঁর ২-৩ টে দাঁত ভেঙে গিয়েছে, বাম চোখে গুরুতর চোট লেগেছে। মাথা ও গালেও চোট পেয়েছেন তিনি। মারতে মারতে তারা আরও বলতে থাকে, তাঁকে পাকিস্তানে পাঠিয়েই শান্ত হবে তারা। বর্তমানে শিকরের এক সরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিনি।

তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

এর আগে গত ৩১ জুলাই সকাল ৯টা নাগাদ হরিয়ানার গুরগাঁওয়ের আইটি হাবের কাছে একটি পিক-আপ ভ‍্যান দেখতে পান স্থানীয় কিছু জনতা। তাতে গোমাংস নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে সন্দেহ করে প্রায় ৮ কিলোমিটার তাড়া করে ভ‍্যানটিকে আটকায় স্বঘোষিত কিছু গোরক্ষক। গাড়ির চালককে টেনেহিঁচড়ে গাড়ি থেকে নামিয়ে বেধড়ক মারতে থাকে তারা। দাদরির ঘটনার মতোই এখানেও পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে নির্যাতিতকে উদ্ধার না করে মাংস পরীক্ষার জন্য ল‍্যাবে পাঠানোর ব‍্যবস্থা করে আগে।

1