ওয়েব ডেস্ক,জুলাই ৩১,২০২০: করোণা টেস্ট করাতে গিয়ে শ্লীলতাহানি শিকার হলেন মহিলা। অভিযোগ, ল্যাবের এক টেকনিশিয়ান ওই মহিলার যৌনাঙ্গ থেকে সোয়াবের নমুনা সংগ্রহ করেন। ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের আমরাবতী জেলায়।

খবরে প্রকাশ,অভিযোগকারিণী অমরাবতীর এক শপিং মলে কর্মরত। ২৪ জুলাই তাঁদের এক স্টাফের কোভিড পজিটিভ ধরা পড়ে। এর পর মলের ২৫ জন কর্মী অমরাবতীর ওই ল্যাবে গিয়ে সোয়াব টেস্ট করাতে দেন। ওই ২৫ জনের মধ্যে অভিযোগকারিণী মহিলাও ছিলেন।

স্থানীয় বাদনেরা থানার ইনস্পেক্টর বানজারি সংবাদ সংস্থাকে গতকাল জানান, মঙ্গলবার অমরাবতীর ওই মলের ২৫ জন স্টাফের নাক থেকে সোয়াব সংগ্রহ করা হয়েছিল। এর পর ওই মহিলাকে আলাদা করে ডেকে, কোভিড টেস্টের অছিলায় ফের গোপনাঙ্গ থেকে সোয়াব সংগ্রহ করে অভিযুক্ত।

রাজ্যের মহিলা ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রী যশোমতি ঠাকুর এই ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেন। অভিযুক্ত টেকনিশিয়ানের বিরুদ্ধে কড়া শাস্তিমূলক পদক্ষেপের হুঁশিয়ারিও দেন মন্ত্রী।

ঘটনায় হতচকিত মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করলে, মঙ্গলবার রাতেই ওই  ল্যাপ টেকনিশিয়ানকে গ্রেফতার করা হয়।

রাজ্যের নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী যশোমতী ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন এবং জানান এ ধরনের টেস্ট ভবিষ্যতের করা যাবে না ।

12