ফাইল চিত্র

ওয়েবডেস্ক: রাজ্যে হুরমুরিয়ে বাড়ছে করোনা পজিটিভ রোগীর সংখ্যা। সুস্থতার হার অনেক রাজ্যের থেকে ভালো হলেও দিনে দিনে সংক্রমণ বাড়ায় কোভিড হাসপাতাল গুলিতে রোগীর উপচে পরা ভিড়। যদিও মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন অনেক বেড এখনও ফাঁকা পরে রয়েছে কিন্তু বাস্তব অভিজ্ঞতা কিন্তু অন্যরকম। ফলে চিন্তিত সাধারণ মানুষ থেকে প্রশাসনও। এমন অবস্থায় শোনা রাজ্য সরকার ফের লম্বা লকডাউনের কথা ভাবছে এবং তা আজ বিকেল ৪টেয় মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিক সম্মেলন থেকে ঘোষণা হতে পারে বলে প্রশাসনের অনেকেরই অনুমান। তবে লকডাউন ঘোষণা হলেও মানুষ কে যাতে বিপদে পড়তে না হয় সেজন্য লকডাউন শুরুর আগে মানুষ কে কিছুটা সময় দেওয়া হবে বলে শোনা যাচ্ছে।

সূত্রের খবর, লকডাউন হলে তা কতদিন থাকবে, কোন এলাকায় কী কী নিয়ম থাকবে তা জানানো হতে পারে আজই। যদিও সরকারি ভাবে এখনও এবিষয়ে কিছু নিশ্চিত করা হয়নি।সূত্র মারফত খবর, অগস্টের প্রথম থেকেই লকডাউন শুরু হয়ে যেতে পারে রাজ্য জুড়ে। সম্ভাবনা রয়েছে একবারে টানা ৭ দিন লকডাউন জারি থাকবে। সেক্ষেত্রে কোথায় কোন নিয়মে বদল আনা হচ্ছে, কোন নিয়মে রাশ কড়া হচ্ছে তাও জানানো হবে শীঘ্রই।

গত সপ্তাহে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দু দিন লকডাউন রাখা হয়েছিল। এ সপ্তাহে আগামীকাল অর্থাৎ বুধবার রাজ্যজুড়ে লকডাউন হওয়ার কথা রয়েছে। গত সপ্তাহে লকডাউনে পুলিশ যথেষ্ট সক্রিয় ছিল লকডাউন সফল করতে এবং তা অনেকাংশেই সফল হলেও সংক্রমণের চেন ভাঙতে সক্ষম হয় নি তাই রাজ্য সরকার আরো দীর্ঘ লকডাউনের কথি ভাবছে বলে খবর।

চলতি লকডাউনগুলিতে ব্যাপক সক্রিয় রয়েছে পুলিশ। সর্বাত্মক মাত্রায় পালন হচ্ছে লকডাউন। পুলিশ যথেষ্ট সক্রিয়তার সঙ্গে কাজ করছে।

সোমবার রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ১১২ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৯ জনের৷ বাংলায় মোট মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৪১১ জন৷

20