২৫/৭/২০২০,ওয়েবডেস্কঃরাজ্যের কলেজগুলিতে প্রায় ১২০০০ অস্থায়ী শিক্ষকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ হলো। কয়েকমাস আগে প্রায় ৭০০ অতিথি শিক্ষককে অন্যত্র বদলির কথা বলা হলেও অবশেষে সেই পথ থেকে সরে এল রাজ্য উচ্চশিক্ষা দফতর।এমন কি চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে বর্ধিত হারে বেতন পাওয়ার জটিলতাও কাটিয়ে উঠল উচ্চশিক্ষা পর্ষদ। শুক্রবার এক নির্দেশিকা জারি করে বোর্ড, যেখানে অতিথি শিক্ষকদের প্রত্যেককে নিজের কলেজেই নিয়োগের ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। 

পাশাপাশি যাঁরা উদ্বৃত্ত ছিলেন না, সম্প্রতি তাঁদের এনগেজমেন্ট লেটার দেওয়ার কাজও শেষ হয়েছে। বিগত কয়েক বছরে রাজ্যে প্রায় ৮ হাজার ৫০০ জন অতিথি শিক্ষক প্রতি ক্লাস পিছু ভাতা পেতেন এবং সেই টাকা কলেজগুলির নিজস্ব তহবিল থেকেই দেওয়া হত। ২ হাজার ৯১৬ জন পার্ট টাইমার ভাতা পেতেন প্রায় ১৯ হাজার টাকা করে। প্রায় ৫০০ চুক্তিভিত্তিক শিক্ষক পেতেন ২৫ হাজার টাকা। এবার থেকে সেই সমস্ত শিক্ষকদের সাম্মানিক বেতন দেবে রাজ্য সরকার৷

অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে এদের স্যাক্ট (স্টেট এডেড কলেজ টিচার্স)-১ এবং স্যাক্ট-২ ক্যাটিগরিতে ভাগ করা হয়েছে। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, স্যাক্টদের বেতন ন্যূনতম ২০ হাজার টাকা। ইউজিসির যোগ্যতামান না থাকা, ১০ বছরের কম অভিজ্ঞতাপূর্ণ শিক্ষকরা সেই বেতন পাবেন। যোগ্যতামান থাকলে সেটাই হয়ে দাঁড়াবে ২৫ হাজার টাকা। ১০ বছরের পুরনো, ইউজিসির যোগ্যতামান পেরনো শিক্ষকরা ৩৫ হাজার টাকা করে পাবেন এবং ১০ বছরের বেশি অভিজ্ঞ কিন্তু ইউজিসির যোগ্যতামান না থাকা শিক্ষকরা সেক্ষেত্রে পাবেন ৩১ হাজার টাকা করে।

9