২৪/৭/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ

আজকাল যেভাবে চুরির ঘটনা বেড়েছে তাতে জিনিসপত্র চুরি করতে গিয়ে ধরা পরা খুবই সাধারণ ব্যপার। তাই বলে বউ চুরি! চমকে উঠলেন?
ঠিক এই ঘটনাই ঘটছে রাজ্যে। বউ চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ে মালদহে গণপিটুনির শিকার হল এক যুবক। বৃহস্পতিবার সকালে মালদহ টাউন স্টেশন চত্বরে ওই যুবককে হাতেনাতে ধরে গৃহবধূ পরিবারের লোকেরা প্রকাশ্য রাস্তায় ব্যাপক গণপিটুনি দেয়। বৃহস্পতিবার লকডাউনের মধ্যে মালদহ টাউন স্টেশন চত্বরে শোরগোলের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

অভিযুক্ত যুবককে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। পাশাপাশি ওই গৃহবধূকে জিজ্ঞাসাবাদের পর তার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। এদিকে এই ঘটনায় ওই গৃহবধূর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযুক্ত যুবকের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

পুরো ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত যুবকের নাম তাপস ঘোষ (৩২) । তার বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর থানার সাহাপাড়া এলাকায়।

এদিন সকালে ইংরেজবাজার থানার দামোদরপুর এলাকার এক গৃহবধূকে নিয়েই পালাচ্ছিল ওই যুবক বলে অভিযোগ। বিষয়টি জানতে পেরে ওই যুবকের পিছু ধাওয়া করে মালদহ টাউন স্টেশনের কাছে ধরে ফেলে । এরপরেই ব্যাপক গণপিটুনি দেওয়া হয় তাঁকে।

সীমা মজুমদার নামের ওই গৃহবধূর একটি ১৩ বছরের নাবালক পুত্র সন্তান রয়েছে । ওই গৃহবধূর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, গৃহবধূ সীমা মজুমদারের বাবার বাড়ি ধৃত যুবকের এলাকাতেই। গত ছ’মাস ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে বলে জানান গৃহবধূর স্বামী শংকর মজুমদার। এদিন গৃহবধূ দিদির বাড়িতে যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসে। কিন্তু তার স্বামী গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মালদা টাউন স্টেশন চত্তরে হাতেনাতে ধরে ফেলেন তাদের। পুরো ঘটনা তদন্ত শুরু করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

16