২০/৭/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ বাংলায় করোনা সংক্রমণের গ্রাফ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী। কিছুতেই পরিস্থিতি বাগে আনা অসম্ভব হয়ে পরছে । রাজ্যে এখনো মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৪২ হাজার ছুঁইছুঁই। আর মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১ হাজার ১১২ জন।

এদিকে, আগের সব রেকর্ড ভেঙে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনার বলি হয়েছেন আরও ৩৬ জন।

জেলাগুলির মধ্যে কলকাতার পরিস্থিতি এখনও উদ্বেগজনক। গত ২৪ ঘণ্টায় শহরে আরও ৬৬২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, যা রাজ্যের মধ্যে সর্বাধিক। ফলে মোট সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৩৪৪ জন। এদিকে, আরও ১৩ জনের মৃত্যুর জেরে শহরে মোট সংখ্যাটা দাঁড়াল ৫৭৬ জন। অন্যদিকে, উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় আরও ৫৪৪ জনের সংক্রমণ এবং ৯ জনের মৃত্যুর ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে রবিবার কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা আরও ৬৩টি বৃদ্ধি করেছে রাজ্য সরকার। ফলে এ পর্যন্ত রাজ্যে মোট কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়াল ৭৩৯টি। সংক্রমণ রুখতে এই সমস্ত জোনে কঠোর লকডাউন মেনে চলতে হবে।

উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা সর্বাধিক। এদিন সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে আরও ১৮টি এলাকা। ফলে এই মুহূর্তে জেলায় মোট কনটেইন্টমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়ে হল ১১৩টি। অন্যদিকে, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এই ধরনের জোনের সংখ্যা ১২টি বেড়েছে। ফলে জেলায় মোট কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৭। নদিয়া এবং পূর্ব বর্ধমান জেলায় ১১টি জোন বেড়েছে। ফলে নদিয়াতে তা বেড়ে হয়েছে ৬৫টি। পূর্ব বর্ধমানের ৮২টি এলাকাকে কনটেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করেছে প্রশাসন। তবে প্রশাসনকে স্বস্তি দিয়ে হাওড়ায় কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা আর বাড়েনি। ফলে আগের মতো তা ৮৫টি-ই আছে

22