১৯/৭/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ

করোনার অগ্রগতি ক্রমশ বেড়ে চলেছে।সমাজের সকল স্তরের মানুষের জন্যই ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা।করোনা আক্রান্ত হয়ে কিছু দিন আগে মৃত্যু হয়েছে প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান পল্লবকান্তি ঘোষের স্ত্রীর। পল্লবকান্তি ঘোষের করোনা রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে।

সূত্রের খবর অনুসারে,নিউটাউনের আকাঙ্খা মোড়ে নিজের বাড়িতেই আইসোলেশনে ছিলো প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান পল্লব কান্তি ঘোষের পরিবার। তাঁদের প্রত্যেকেরই করোনা টেস্ট করা হয়। শনিবার রিপোর্ট আসলে দেখা যায়, করোনায় আক্রান্ত পল্লব বাবু ও তাঁর স্ত্রী।তাঁদের ছেলের রিপোর্ট অবশ্য নেগেটিভ এসেছে বলে জানা গেছে।
অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে পল্লব বাবুর স্ত্রীর। প্রবল শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তাঁর। অবশেষে মৃত্যু মুখে পতিত হন তিনি।অসুস্থতা বৃদ্ধি পাওয়ায় পল্লববাবু নিজেও কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি আছেন বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে ইতিমধ্যেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুমুখে পতিত হয়েছেন কলকাতার বিশিষ্ট ক্যানসার চিকিৎসক এবং কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও আরজি হাসপাতালের হেড অফ দ্য ডিপার্টমেন্ট সত্তরোর্ধ অধ্যাপক অভিজিৎ বসুর।

রাজ্যে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ভয়াবহভাবে বেড়েই চলেছে।সেই সাথে সারা দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১০লক্ষ ছাড়িয়ে গেছে। সাথে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও।এদিকে কেরলেও গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন।সব মিলিয়ে ভয়াবহ দেশ ও রাজ্যে ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা।

10