১৮/৭/২০২০,ওয়েবডেস্কঃশুধু দেশ নয় দিল্লির দাঙ্গা ও সিএএ বিরোধী আন্দোলন তোলপাড় করেছে গোটা দুনিয়া। দিল্লির মহিলারা মাসের পর মাস লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে গেছেন কোন বাধার কাছে নতি স্বিকার না করে। সেই আন্দোলন করোনার থাবায় বন্ধ হয়েছে। কিন্তু আন্দোলন বন্ধ হলেও করোনা আক্রমণের সময়কালেই অমিত শাহ পরিচালিত স্বরাষ্ট্র দপ্তরের অধিনস্থ দিল্লি পুলিশ আন্দোলনকারীদের ধর পাকড় চালিয়ে যাচ্ছে।আন্দোলনকারী গর্ভবতী তরুণী সাফুরা জারগারকে জেলবন্দী করে রাখা হয়েছিল। সেই দিল্লি পুলিশ দিল্লির দাঙ্গা এবং সিএএ বিরোধী আন্দোলনের মামলায় আদালতে লড়াই করার জন্য সরকারি তরফে উকিল নিয়োগের আবেদন করে একটি চিঠি পাঠায় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে। চিঠিতে আদালতে এই মামলা চলাকালীন আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে সরকার পক্ষের হয়ে লড়াই করার জন্য আইনজীবী নিয়োগের আবেদন করা হয়েছে। দিল্লি পুলিশের এই আবেদনকে কার্যকর করতে এবার কেজরিওয়ালকে চিঠি লিখেছেন দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর।সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রের খবর লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বৈজল দিল্লি সরকারের মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালকে একটি চিঠি লিখে এক সপ্তাহের মধ্যে এই বিষয়ের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা বলেছেন বলে জানা গেছে।
উল্লেখ্য, সিএএ বিরোধী আন্দোলন চলাকালীন মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল শাহিন বাগের আন্দোলনকারীদের আন্দোলন বন্ধ করার কোন ব্যবস্থা করেননি বলে দিল্লি সরকারের ওপর নানা সময়ে দোষারোপ করেছে বিজেপি।এবার আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা লড়ার জন্য আইনজীবী নিয়োগের জন্য দিল্লি পুলিশের আবেদনের পর লেফটেন্যান্ট গভর্নরের কেজরিওয়ালকে চিঠি দেওয়ার কথা সামনে আসতে অনেকেই দিল্লি সরকারের ওপর সরাসরি কেন্দ্র সরকারের চাপ সৃষ্টি করার প্রক্রিয়া বলেই এই ঘটনা দেখছেন বলে জানা গেছে।

11