ওয়েবডেস্ক,জুলাই ৬,২০২০: লড়াইয়ের ময়দানে চার মহারথী চার বাণিজ্যিক গোষ্ঠী। ২ দেশী ২বিদেশী। কে জিতবে এই সয়ম্বর? বেসরকারি সংস্থাগুলির জন্য ভারতীয় রেলের দরজা কার্যত হাট করে খুলে দিয়েছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। রেলের বেসরকারিকরণের চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলতি মাসেই শুরু হয়ে গিয়েছে। দেশে যাত্রীবাহী ট্রেন চালাতে আগ্রহী বেসরকারি সংস্থাগুলির থেকে ইতোমধ্যে টেন্ডার চাওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে দেশজুড়ে ১০৯টি রুটে ১৫১টি ট্রেন চালানোর ভার বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার নীতিগত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়ে গিয়েছে। প্রতিটি ট্রেনে ১৬টি করে কোচ থাকবে। নিলামের মাধ্যমে সফল সংস্থাগুলিকে বেছে নেওয়া হবে। এর মাধ্যমে ৩০,০০০ কোটি টাকার লগ্নি আসবে বলে আশা সরকার। এ ছাড়া বেসরকারি সংস্থাগুলি যাতে ভারতে তৈরি ট্রেনের কোচ কেনে, সেই বিষয়েও বিশেষ জোর দেওয়া হচ্ছে।

বেসরকারি সংস্থাগুলিকেও যাত্রীবাহী ট্রেন চালানোর সুযোগ করে দেওয়ার কেন্দ্রীয় সরকারের তৎপরতা ২০১৯ সাল থেকেই দেখা যাচ্ছিল। প্রথম নিলাম প্রক্রিয়ায় প্রায় ২০টি পরিকাঠামো ও পরিবহণের সঙ্গে যুক্ত সংস্থা ট্রেন চালানোর বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছিল। এর মধ্যে ছিল আদানি পোর্ট, টাটা রিয়ালিটি অ্যান্ড ইনফ্রা, এসেল গ্রুপ, বম্ববার্ডিয়ার ইন্ডিয়া এবং Macquarie গোষ্ঠী। এই ব্যবসায়ী গোষ্ঠীগুলির চারটি ই কোন না কোনভাবে রেল পরিবহন বা নির্মাণের সাথে যুক্ত। এদের মধ্যে আদানি গোষ্ঠীর নিজস্ব ৩০০ কিলোমিটার রেলপথ রয়েছে দেশের বুকে।  তবে এই সবটাই ছিল করোনা মহামারীর আগে। করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতেও কি ওই একই সংস্থাগুলি নিলাম প্রক্রিয়ায় অংশ নেবে? এটাই এখন‌ লাখ টাকার প্রশ্ন।

15