জুলাই ৬,২০২০,ওয়েবডেস্কঃ দিল্লির রাধা সোয়ামি সতসঙ্গে তৈরি হলো বিশ্বের সবচেয়ে বড়ো কভিড কেয়ার সেন্টার। করোনাভাইরাসের এই কালবেলায় এই মহামারীর সঙ্গে লড়াই করার কাজে আসবে এই সেন্টার, মনে করছে দিল্লি সরকার। এদিন ঘুরে ঘুরে গোটা কোভিড কেয়ার সেন্টার দেখেন অনিল বাইজাল। রোগীদের জন্য নির্মিত শয্যা, অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা, ভেন্টিলেটর, আইসিইউ ও স্বাস্থ্য কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন গভর্নর এবং খতিয়ে দেখেন সবটাই। এই সেন্টারের নাম দেওয়া হয়েছে ‘অপারেশন করোনা ওয়ারিয়র্স’।

অনিল বাইজাল বলেন, ‘কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সহযোগিতায় দিল্লিতে তৈরি হয়েছে বিশ্বেস সবচেয়ে বড় করোনাভাইরাস কেয়ার সেন্টার। এই মহামারীর সঙ্গে লড়াইয়ের সময় এটি দারুণ কাজে আসবে।’ ১৭০০ ফিট দীর্ঘ এবং ৭০০ ফুট চওড়া এই সেন্টারে প্রায় ২০টি ফুটবল মাঠ ঢুকে যাবে। এতে ২০০টি এলক্লোজার রয়েছে। প্রতিটিতে রয়েছে ৫০টি শয্যা। এই সেন্টারকে দুভাগে ভাগ করা হয়েছে। প্রথমটি কোভিড কেয়ার সেন্টার (CCC), আরেকটি অর্ডেডিকেটেড কোভিড হেল্থ সেন্টার(DCHC)। প্রথম ভাবে যাঁদের লক্ষণহীন করোনা তাঁদের থাকার ব্যবস্থা করা হবে। আর দ্বিতীয় ভাবে যাঁদের অক্সিজেন ও ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন অর্থাৎ আশঙ্কাজনক পরিস্থিতিতে যে রোগীরা রয়েছে তাঁদের দেখভাল করা হবে। ৯০ শতাংশ বেডই রয়েছে প্রথম বিভাগে। প্রায় ১০০০ ডাক্তার ও নার্স নিযুক্ত থাকবেন এই সেন্টারে।

দিল্লি প্রশাসনের পরিকল্পনা অনুযায়ী, হরিয়ানা সীমানার কাছে ছত্তরপুরে রাধা স্বামী উপাসনা কেন্দ্রে এই কোয়ারানটিন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে। জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহেই এই কোয়ারানটিন সেন্টার তৈরি হয়ে যাবে বলে রাধা স্বামী উপাসনা কেন্দ্র সূত্রে খবর ছিল আগেই। সেই মতোই ৫ জুলাই উদ্বোধন করা হল এটি।

40