বাংলার অতি পরিচিত একটি শাক কুলেখাড়া। ঔষধি গুণও মারাত্মক! নানা রকম রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতায় ভরপুর। একনজরে দেখে নিন, কীকী গুণ রয়েছে কুলেখাড়ায়–

১)

পায়ে বা হাতে চেটো কিংবা শরীরের কোনও অংশ ফুলে উঠলে ১ টেবিল চামচ কুলেখাড়া পাতার রস গরম করে দিনে ২ বার খান। সঙ্গে ১ চা চামচ মধু মিশিয়েও খেতে পারে। আরাম পাবেন। কোনও কারণে কেটে গেলে, রক্তপাত হলে কুলেখাড়া পাতা থেঁতো করে কাটা জায়গায় চেপে বেঁধে দিন। রক্তপাত বন্ধ হয়ে যাবে, ক্ষতও তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

২)

হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ কমে গেলে রক্তে কুলেখাড়া পাতার রস সেদ্ধ করে ছেঁকে নিয়ে সেই জল খান। এক সপ্তাহের মধ্যে হিমোগ্লোবিনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। অথবা দিনে ২ বার ৪ চা চামচ কুলেখাড়া পাতার রস সামান্য গরম করে খান।

৩)
ঘুমের সমস্যায় নাজেহাল হলে সন্ধেবেলা ২-৪ চা চামচ কুলেখাড়ার শিকড়ের রস খান। উপকার পাবেন।

৪)

যৌন ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে হলে আলকুশি বীজগুঁড়ো ও কুলেখাড়া বীজগুঁড়ো করে গরম দুধের সঙ্গে মিশিয়ে নিয়মির রাতের বেলা খান।

৫)

হারপিস হলে এই গাছের পাতা ও কাচা হলুদ একসঙ্গে বেটে লাগান। জ্বালা-যন্ত্রণা যেমন কমবে, ক্ষতও শুকিয়ে যাবে।

307