https://kulikinfoline.com/vid-20200701-wa0016-mp4/

আবারও খবরের শিরোনামে পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া মহকুমা হাসপাতাল। ফের খবরের শিরোনামে পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া মহকুমা হাসপাতাল। কাজ দেওয়ার নাম করে হাসপাতালেই মধুচক্রের আসর চলে বলে আগেই উঠেছিল অভিযোগ। এবার সামনে এল এক গোপন ভিডিও সেখানে ডেপুটি সুপারের বিরুদ্ধে কাজ দেওয়ার নামে মহিলাদের হাসপাতালে ডেকে এনে যৌনতায় লিপ্ত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এতটি ভিডিয়ো। তাতে দেখা যাচ্ছে। এক মহিলার আচ্ছাদিত অংশের কাপড় সরিয়ে চুম্বন করছেন তিনি। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতে ডেপুটি সুপার অনন্য ধর আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করেন। ওই হাসপাতালেই তাঁর চিকিৎসা চলছে।

কাটোয়ার এক তরুণী সম্প্রতি ভিডিওটি সামাজিকমাধ্যমে পোস্ট করছেন। ভিডিওটি দেখে অভিযুক্ত অনন্য ধরের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা দেয়ার দাবি উঠেছে। ফেসবুক পোস্টে ওই তরুণী মুখ্যমন্ত্রীর কাছেও এমন আবেদন জানিয়েছেন।
অন্যদিকে ভিডিও ফাঁস হওয়ার স্থানীয় অনেকেই মুখ খুলতে শুরু করেছেন। স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন, ‘নারীদের কাজ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে ডেপুটি সুপার কাটোয়া মহুকুমা হাসপাতালের মধ্যেই যৌন হেনস্থা করেন। নারীদের নিয়ে মধুচক্রের ব্যবসাও চালান।

এর আগেও একই অভিযোগে অনন্য ধরের বিরুদ্ধে কাটোয়া থানায় অভিযোগ করা হয়েছিল বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। কিন্তু তখন উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে নির্যাতিত নারী ঘটনাটি মীমাংসা করে নিতে বাধ্য হয়েছিলেন।

কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডাক্তার রতন শাসমল জানান, ‘ফেসবুকে ভাইরাল পোস্টটি দেখেছি। এই ভিডিয়ো ফুটেজটি হাসপাতালের ভিতরের। হাসপাতালের ভিতরে এই ধরনের ঘটনা বাঞ্ছনীয় নয়। এ ঘটনার বিভাগীয় তদন্ত হবে। বিষয়টি নিয়ে উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলছি। ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হলে অভিযুক্তের উপযুক্ত শাস্তি হবে।

59