বিনোদন জগৎ থেকে দুঃসংবাদ আসা যেন থামতেই চাইছে না। গত দুই মাসে একের পর এক আকস্মিক মৃত্যু সংবাদ ভারতীয় বিনোদন জগতকে কাঁপিয়ে দিচ্ছে। সম্প্রতি টিকটক স্টার সিয়া কক্করের আত্মহত্যার পর এবার আরেক টিকটক স্টার শিবানী কুমারীর মৃত্যু হল। বিউটি পার্লারের মধ্যে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে তাঁকে!

হরিয়ানার টিকটক স্টার শিবানীর হত্যায় তার বন্ধু আরিফকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, শিবানীর একটি বিউটি পার্লার রয়েছে। সেখানেই আরিফ এসে তাঁকে খুন করে। শিবানীর বোন শ্বেতা জানিয়েছেন, আরিফের সঙ্গে ফোনে কথা বলছিলেন শিবানী। এরপরই বিউটি পার্লারে এসে শিবানীকে নৃশংসভাবে খুন করে সে।

শ্বেতার দাবি অনুযায়ী, শুক্রবার রাতে বাড়ি আসবে না বলে তাঁকে মেসেজ করেছিল শিবানী। তাতে লেখা ছিল, শিবানী হরিদ্ধার যাচ্ছে। বাড়ি ফিরবে মঙ্গলবার। কিন্তু সোমবার শ্বেতার এক বন্ধু, নীরজ ওই বিউটি পার্লারটি খুললে দুর্গন্ধ বেরোতে শুরু করে। এরপর খুঁজতে খুঁজতে পার্লারের একটি আলমারি খুলতেই উদ্ধার হয় শিবানীর মৃতদেহ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, হরিয়ানার ওই পরিচিত টিকটক স্টারের দেহে পচন ধরে গিয়েছে। তাঁর দেহ ময়নাতদন্তের জন্যে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা শুরু হয়েছে আরিফকে। আরিফ কে গ্রেফতার করা হলেও এখন পর্যন্ত সঠিক কি কারণে শিবানী কে খুন করা হয়েছে তা নিয়ে এখনও ধন্দে পুলিশ।

সম্প্রতি দিল্লিতে টিকটক স্টারের সিয়া কক্কর আত্মহত্যা করেন বলে পুলিশের দাবি। এরপরই অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন, সিয়ার আত্মহত্যার সঙ্গে কি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর কোনও সম্পর্ক রয়েছে? যদিও দিল্লি পুলিশের তরফে স্পষ্টতই জানানো হয়, সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে সিয়ার আত্মহত্যার কোনও যোগ নেই।

গত বুধবার দিল্লিতে নিজের বাড়িতে আত্মহত্যা করেন টিকটক স্টার সিয়া কক্কর। মাত্র ১৬ বটর বয়সেই কেন সিয়া আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন, তা নিয়ে সন্দিহান সকলেই। তাঁর আত্মহত্যার খবর প্রকাশ্যে আসার পর তার ম্যানেজার দাবি করেন, সিয়ার ইনস্টাগ্রামে ১ লক্ষ ফলোয়ার। টিকটকে রয়েছে ১ মিলিয়ন ফলোয়ার। তাই পেশাগত নয়, ব্যক্তিগত কারণেই সিয়া আত্মহত্যা করতে পারেন

মধ্যে আরও জোরদার হচ্ছে সুশান্ত-মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের দাবি। চাপ বাড়ছে মুম্বই পুলিশের উপর। বাধ্য হয়ে রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করে মুম্বই পুলিশের তরফে বলা হয়েছে, ‘দয়া করে আপনারা আমাদের উপর ভরসা রাখুন। আমরা অত্যন্ত পেশাদারিত্বের সঙ্গে এই তদন্তের দায়ভার সামলাচ্ছি। সুশান্তের মৃত্যু রহস্যের যাবতীয় সত্য-তথ্য তুলে ধরা হবে। সুশান্তের দেহ থেকে আরও বেশ কিছু নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। সেই রিপোর্ট এখনও আসেনি। আমরা ফরেন্সিক টিমকে অনুরোধ করেছি, যত দ্রুত সম্ভব তা আমাদের দেওয়ার জন্যে।

12