মোদি বিরোধী খবর! এবার ‘এন্টি ন্যাশনাল’ তকমা জুটলো সংবাদ সংস্থা পিটিআই এর

২৮/৬/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ

এর আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা, ছাত্রছাত্রী বা নাগরিক আন্দোলনকে ‘জাতীয়তাবিরোধী’ বা দেশদ্রোহী আখ্যা দিয়ে দমিয়ে রাখার চেষ্টা হয়েছে বহুবার! এমন বহু মামলার নজিরই রয়েছে মোদী সরকারের আমলে। এ বার সরাসরি জাতীয়তাবিরোধী (অ্যান্টিন্যাশনাল) তকমা জুটল সংবাদ সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া (পিটিআই)-এর কপালে।

লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা ছড়িয়েছে বেশ কিছুদিন। সেই লাদাখ সংক্রান্ত কিছু খবর ও সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছিল সংবাদ সংস্থা পিটিআই। আর তার জেরে পিটিআইকে বার্ষিক সাবস্ক্রিপশন বন্ধের হুমকি দিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে প্রসার ভারতী (দূরদর্শন এবং অল ইন্ডিয়া রেডিয়ো-র নিয়ন্ত্রক সংস্থা)। চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘‘এমন জাতীয়তাবিরোধী খবরের পরে পিটিআইয়ের সঙ্গে সম্পর্ক আর রাখা যায় না।’’

চিঠির প্রাপ্তিস্বীকার করেছে পিটিআই। পিটিআই জানিয়েছে, যথাসময়ে প্রতিক্রিয়া জানাবে তারা। এই বিষয়ে আজ সংস্থার কর্তাদের দিল্লিতে অনেক রাত পর্যন্ত বোর্ড মিটিং চলে।

ভারতীয় সেনাদের মৃত্যুর পর নরেন্দ্র মোদি দাবী করেন ‘কেউ ভারতের এলাকায় ঢোকেনি’। প্রধানমন্ত্রীর এই দাবী ঘিরে প্রশ্ন উঠেছে দেশ জুড়ে। এই অবস্থায় বেজিংয়ে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিস্রিকে উদ্ধৃত করে পিটিআইয়ের খবরে ইঙ্গিত ছিল ‘চিনা অনুপ্রবেশের’।

বিক্রম বলেছিলেন, ‘‘ভারতের আশা, শীঘ্রই নিজেদের দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন হয়ে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে পিছু হটবে বেজিং।’’ যার অর্থ, চিন ঢুকেছিল ভারতীয় ভূখণ্ডে।

123