৩৭ বছর আগে আজকের দিনেই কপিলের হাতে উঠেছিল বিশ্বকাপ!

কুলিক প্রতিবেদন: তারিখটা আজকেরই শুধু সালটা ১৯৮৩, ২৫ জুন ১৯৮৩ ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে এক গৌরবময় দিন৷ শুধু ক্রিকেটই নয়, ভারতীয় ক্রীড়াক্ষেত্রেই এই দিনটি চির-স্মরণীয় হয়ে থাকবে৷ এই দিনেই যে প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছিল ভারত ৷ আজ তার ৩৭ বছর পূর্ণ হলেও লর্ডসের ব্যালকনিতে কপিল দেবের হাতে সেই প্রুডেনশিয়াল কাপ ট্রফি তোলার দৃশ্য আজও প্রত্যেক ভারতবাসীর স্মৃতিতে টাটকা হয়ে আছে ৷
২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ এবং ২০১১-এ দেশের মাটিতে বিশ্বকাপ জয়ও এই ১৯৮৩ জয়ের স্মৃতিকে বিন্দুমাত্র কমাতে পারেনি৷ বরং ভারতের ক্রিকেট বিশ্বকাপের প্রসঙ্গ উঠলেই প্রথমে ৮৩’র বিশ্বকাপের কথাই এখনও মনে পড়ে।

৩৭ বছর আগে সেই রাতের কথা এখনও চোখের সামনে। টিভির পর্দায় দেখছি প্রুডেন্সিয়াল কাপ একত্রে ধরেছেন কপিল দেব ও মহিন্দর অমরনাথ। মহিন্দর ছিলেন ম্যান-অফ-দ্য-ম্যাচ। লর্ডসের আউটফিল্ডে তখন অসংখ্য মানুষ আর গোটা ভারত মাঝরাতে টিভির সামনে। যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৯৭৫ ও ১৯৭৯ সালে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল, সেই ক্লাইভ লয়েডের দলকেই ভারত হারিয়েছে ৮৩ রানে। তখন দেশে এত টিভি ছিল না। তবে রেডিওর রিলে আর যাঁদের ক্লাব ও বাড়িতে টিভি ছিল সেই জয়ের মুহূর্তে উল্লাসধ্বনিতে ভারতের আকাশ যেন বিদীর্ণ। পাড়ায় পাড়ায় পটকা আর বাজি। রাস্তায় নেমে এসেছে মানুষের ঢল।

কপিল দেবের নেতৃত্বে ভারতের এই জয় আমরা কেউই বোধহয় আশা করিনি। কারণ ১৯৭৫ সালে বিশ্বকাপে ভারত মাত্র একটি ম্যাচ জিতেছিল। তাও দুর্বল পূর্ব আফ্রিকার বিরুদ্ধে। আর ১৯৭৯ সালে দ্বিতীয় বিশ্বকাপে আমাদের একটিও জয় ছিল না। তাই ১৯৮৩ সালে আমরা জিতব কি এই প্রশ্নই ছিল সকলের মনে। ওদিকে, ক্লাইভ লয়েড বিশ্বকাপে হ্যাট্রিকের আশায়।

ভারত এবার ফাইনালে ওঠার আগে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মতো দলকেও হারিয়েছে। গ্রুপ লিগে ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও হারিয়েছিল। আর জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ক্যাপ্টেন্স-নক খেলেছেন কপিল দেব। তাঁর নামের পাশে ১৭৫। তিনবারের বিশ্বকাপে এটি রেকর্ড।

আগামী দিনেও ভারত হয়তো অনেক বিশ্বকাপ জিতবে৷ হয়তো নতুন প্রজন্ম কপিলদের ৮৩’র বিশ্বকাপ জয়কে ভুলেও যেতে পারে৷ কিন্তু ইতিহাসের পাতা উল্টালেই স্মৃতিতে ভেসে উঠবে লর্ডসে ৮৩’র ২৫ জুন ভারতীয়দের সেই অবিস্মরণীয় কীর্তি৷

141