বাড়ির ভিতরে বিভৎস জোড়া খুনে ব্যাপক চাঞ্চল্য ইসলামপুরে।

ইসলামপুর শহরে দিনে দুপুরে বাড়ির ভেতরে জোড়া খুনের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছাড়ালো। ইসলামপুরের রামকৃষ্ণ পল্লীতে একটি বাড়িতে ঘরের ভিতরে মা ও মেয়ের মৃতদেহ পড়ে থাকার ঘটনা জানতে পারার সাথে সাথে এলাকার মানুষ ভিড় জমায়। খবর পেয়ে পুলিশের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রাথমিক তদন্তের কাজে হাত দিয়েছেন।

ইসলামপুরের রামকৃষ্ণ পল্লীতে ঐ বাড়িতে মুন্না হাজরা তার স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে ভাড়া থাকতো। জানা গিয়েছে এদিন মুন্না বাড়িতে এসে তার স্ত্রী ও সন্তানের দেহ পরে থাকতে দেখে। খবর পেয়ে মুন্নার শ্বশুর বাড়ির লোকজন ও পৌছে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর মুন্না কে আরো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে গেছে। তবে কে বা কারা এভাবে একজন গৃহবধূ ও তার মেয়ে কে ধারালো অস্ত্রের সাহায্যে এমন নৃশংস ভাবে খুন করলো সে ব্যাপারে পুলিশ এখনও নিশ্চিত না হলেও মৃতার মা ও ভাইয়ের সন্দেহ মুন্নাই এই খুনের জন্য দায়ী। তাদের অভিযোগ মুন্না মাঝে মধ্যেই স্ত্রী সন্তানকে রেখে অনেকদিন বাড়ি ফিরতো না। মৃতার ভাই জানিয়েছে সেই তখন বোনের সংসারের খরচ বহন করতো। মৃতার ভাই আরো জানিয়েছে যে তার বোন মুন্না হাজরার সাথে প্রেম করে বিয়ে করে। কিন্তু বিয়ের পর তারা লোকমুখে জানতে পারে যে মুন্না আগেও একাধিক বিয়ে করেছিল। আগের বৌকেও নাকি মুন্না খুন করেছে।

318