লকডাউনে বেতন সংক্রান্ত বিষয়ে বেসরকারি সংস্থা গুলোর পক্ষেই কথা বললো সুপ্রিম কোর্ট

১২/৬/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ গত ২৯ শে মার্চ কেন্দ্র সরকার একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায় যে, লকডাউনের সময় কর্মচারীদের পুরো বেতন দেওয়া বাধ্যতামূলক। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক ওই বিজ্ঞপ্তিতে সকল নিয়োগকারীকে কোভিড- ১৯ এর সংক্রমণ রুখতে জারি করা লকডাউন চলার সময়ে যে সব সংস্থা বন্ধ ছিল তাঁদের কর্মীদের কোনও কাটছাঁট না করেই বেতন দেওয়ার কথা বলা হয়। আপাতত সেই নির্দেশের ওপর স্থগিতাদেশ দিলো সুপ্রিম কোর্ট।

লকডাউনের সময় যে বেসরকারি সংস্থাগুলো কর্মীদের বেতন দেয়নি, তাঁদের বিরুদ্ধে জুলাইয়ের শেষ পর্যন্ত কোনও ব্যবস্থা নেওয়া যাবে না,এবার পরিস্কার জানালো সুপ্রিম কোর্ট । শীর্ষ আদালত বলেছে যে, দরকারে বেতন দেওয়ার বিষয়ে বিভিন্ন রাজ্যের কর্মচারী ও নিয়োগকারীদের মধ্যে আলোচনাও চালানো কর যেতে পারে। তারপর সেই আলোচনার বিষয়ে লেবার কমিশনারদের কাছে একটি রিপোর্ট জমা দিতে হবে।

২৯ মার্চ জারি করা কেন্দ্রীয় নির্দেশের বিরুদ্ধে ক্ষুদ্র শিল্প সংস্থার অ্যাসোসিয়েশন এবং লুধিয়ানা হ্যান্ড টুলস অ্যাসোসিয়েশন, ফিকাস প্যাকস এবং অন্যান্য কয়েকটি বেসরকারি সংস্থার করা আবেদনের ভিত্তিতেই ওই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে


কেন্দ্রের সেই নির্দেশিকার বৈধতা নিয়েই প্রশ্ন তোলে আদালত। এই বিষয়ে জবাব দেওয়ার জন্যে কেন্দ্রকে আরও ৪ সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে।
এটিকে কখনোই না মেনে পারা যায় না যে কর্মী এবং নিয়োগকারী, দু’তরফেরই একে অপরকে প্রয়োজন আছে।তাই ওই ৫০ দিনের বেতন দেওয়া সংক্রান্ত বিরোধের সমাধান করার চেষ্টা করা উচিত”, জানায় বিচারপতি অশোক ভূষণ, সঞ্জয় কিশান কৌল এবং এমআর শাহের বেঞ্চ। জুলাইয়ের শেষে এই মামলার পরবর্তী শুনানি।

195