কলম্বাসের মূর্তির শিরচ্ছেদ বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে উত্তাল আমেরিকায়!

মার্কিন মুলুকে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রতিদিন আরও তীব্রতর হয়ে উঠছে। আমেরিকার বর্ণবাদী ইতিহাসের চিহ্নগুলি মুছে ফেলতে স্লোগান তোলা হচ্ছে। উপনিবেশবাদ বা কৃষ্ণাঙ্গদের দাসত্বকে সমর্থন করেছিল এমন লোকদের মূর্তি অপসারণের দাবি এখানে উত্থাপিত হচ্ছে। এদিকে, বুধবার বস্টন শহরের বিক্ষোভকারীরা ‘আমেরিকার অভিযাত্রী’ ক্রিস্টোফার কলম্বাসের একটি মূর্তির শিরচ্ছেদ করেছে কারণ কলম্বাস সেখানে উপনিবেশবাদের সূচনাকারী বলে বিশ্বাস করা হয়। স্থানীয় খবরে বলা হয়েছে, বোস্টন ছাড়াও ডাউনটাউন মিয়ামিতে কলম্বাসের একটি মূর্তিও ভাঙচুর করা হয়েছিল। একই সময়ে ভার্জিনিয়ার রিচমন্ডের কলম্বাসের মূর্তিটি ভেঙে একটি পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

গত মাসে মিনেসোটার মিনিয়াপলিসে একজন সাদা পুলিশ আধিকারিকের হাতে অ্যাফ্রো-আমেরিকান জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর থেকে বর্ণবাদ এবং পুলিশের বর্বরতার বিরুদ্ধে প্রচণ্ড বিক্ষোভ দেখা গেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় 50 টি রাজ্য এই বিক্ষোভে অংশ নিচ্ছে। এই বিক্ষোভগুলির মধ্যে, চাপ বাড়ছে যেন আমেরিকাতে এই জাতীয় স্মৃতিস্তম্ভ বা মূর্তিগুলি সরানো হয়, যারা আমেরিকার বর্ণবাদী ইতিহাসের সাথে যুক্ত। বোস্টনের কলম্বাসের এই মূর্তিটি বছরের পর বছর ধরে বিতর্কের অংশ এবং এটি অপসারণের জন্য আগেও বহুবার দাবি উত্থাপন করা হয়েছিল।

ক্রিস্টোফার কলম্বাসকে সর্বদা ‘নিউ ওয়ার্ল্ড’ (আমেরিকা) এর এক্সপ্লোরার হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে, তবে অনেকে কলম্বাসকে আমেরিকার স্থানীয় মানুষের বিরুদ্ধে বহু দশকের অত্যাচারের সূচক বলে মনে করা হয়। কলম্বাসকে একইভাবে দক্ষিণ আমেরিকার দক্ষিণ রাজ্যগুলির গৃহযুদ্ধের জেনারেলদের (যেমন বর্ণবাদ এবং কৃষ্ণাঙ্গদের দাসত্বের বেদনাদায়ক ইতিহাস রয়েছে) হিসাবে দেখা হয়।

128