ডিউটিরত নার্স করোনা পজিটিভ। আতঙ্ক রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে।

রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের কর্তব্যরত এক নার্সের লালারসের নমুনা মালদা পাঠানো হয়েছিল। সেই রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। যেহেতু ঐ নার্সের কোভিড – ১৯ এর কোনো উপসর্গ ছিল না তাই নমুনা পাঠানোর পরে সে এতদিন ধরে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্বাভাবিক ভাবে ডিউটি করেছে। এমতাবস্থায় রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে তার সহকর্মী ডাক্তার, নার্স ও অন্য কর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। চিন্তার বিষয় যে এই সময় কালে যে রোগীদের তিনি সেবা করেছেন তাদের মধ্যে আবার কারো সংক্রমণ ছড়িয়েছে কিনা?

যদিও এ বিষয়ে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এই বিষয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কারণ দেখছেন না। তিনি জানিয়েছেন অন্য অনেক চিকিৎসক ও নার্সদের মত এই নার্সের কোনো উপসর্গ না থাকলেও random sample হিসেবে তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল গত মাসের ১৬ তারিখ। তিন সপ্তাহের ও বেশি সময় পরে তার রিপোর্ট এলে দেখা যায় যে রিপোর্ট পজিটিভ। যদিও গতমাসের ১৮ তারিখ রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজের ট্রুনেট মেশিনে তার নমুনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে বলেই তাকে ডিউটি করতে অনুমতি দেওয়া হয়। তাই আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই বলে তিনি জানিয়েছেন। যদিও অধ্যক্ষের আশ্বাসের পরেও প্রশ্ন থাকছে যে নিশ্চয়ই ঐ নার্সের সংক্রমণের সম্ভাবনা না থাকলে দু দু বার স্যাম্পল টেস্ট করা হল কেন? এই সমস্ত ক্ষেত্রে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আরও সাবধানতা অবলম্বন না করলে করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে অনেকেই মনে করছেন।

292