প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীর উদ্দেশ্যে লিখলেন এক চিঠি

৩০শে মে,২০২০: বিজেপি সরকারের দ্বিতীয় বার ক্ষমতায় আসার দ্বিতীয় বছর পূর্ণ হলো। লকডাউনের মধ্যে দেশজোড়া কোন কর্মসূচির কথা ঘোষণা করে নি বিজেপি। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীর উদ্দেশ্যে লিখলেন এক চিঠি। কি আছে সেই চিঠিতে তিনি সে চিঠিতে? ভারতবর্ষে এই প্রথম একটি সশক্ত সরকার গঠন করার জন্য দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বিজেপি সরকারের নানা সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে প্রশংসা পেয়েছে বলে উল্লেখ করলেন । এবং দেশের লকডাউন পরিস্থিতিতে ছোট ব্যবসায়ী,শ্রমিকদের খুব কষ্ট হয়েছে একথাও স্বীকার করে নিলেন। কিন্তু চিঠিতে উল্লেখ করলেন না এই কষ্ট পাওয়া, কাজ হারানো শ্রমিক, ছোট ব্যবসায়ী এদের কষ্ট লাঘবের কথা।চিঠিতে বলা হয়েছে এই সরকার বিগত দু’বছর ধরে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বড় বড় সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা দেখিয়েছে । কিন্তু উল্লেখ করা হলো না নোট বন্দির মতো ঘটনার কথা। উল্লেখ করা হলো না এনআরসি এনপিআর এর ফলে মানুষের যন্ত্রণার কথা। দেশ জোড়া আন্দোলনের কথা। সাম্প্রদায়িক ভেদাভেদ এর ফলে মব লিঞ্চিং মৃত্যুর ঘটনার কথাও উল্লেখ করা হলো না।কিভাবে রাজ্যগুলির নির্বাচিত সরকারকে ভেঙে ফেলা যায় তার পদ্ধতি বিজেপি সরকার দেখিয়েছে। তার কথাও চিঠিতে বলেননি মোদি। চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী মোদী লিখেছেন, ‘এই প্রচণ্ড সংকটের সময় এরকম দাবি করা সম্ভব নয় যে কারোর কোনও কষ্ট হয়নি। আমাদের পরিযায়ী শ্রমিকরা, ছোট শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা এবং আরও অনেক সহ-নাগরিক দুঃসহ কষ্টের মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন। তবে এই কষ্ট যাতে বিপর্যয়ে পরিণত না হয়, তার জন্য সবরকম ভাবে আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি।’
প্রধানমন্ত্রী তাঁর চিঠিতে আরও লিখেছেন, ‘আমাদের দেশ এখন সমস্যার মুখোমুখি দাঁড়িয়ে। আমি সারা দিন-রাত কাজ করছি। হয়তো এখনও অনেক কিছুর অভাব আছে। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি, দেশবাসীর ক্ষমতা ও শক্তি সব অভাবকে পূরণ করে দেবে।’ এর সঙ্গেই তিনি আত্মনির্ভর ভারত গড়ার লক্ষ্যে তাঁর মনোবাসনার কথা আবারও প্রকাশ করেন।
নরেন্দ্র মোদী আরও লিখেছেন, ‘গত বছর এই দিনে ভারতীয় গণতন্ত্রের সোনালি অধ্যায়ের সূচনা হয়েছিল।’ এই দিনেই টানা দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় ফেরেন মোদী। সে কথাও স্মরণ করাতে ভোলেননি তিনি।

209