ওয়েব ডেস্ক, মে,২৫২০২০: আজ মৃত্যু হল সোমবার মৃত্যু হল শ্বাসকষ্ট এবং করোনা সংক্রমণের লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক পুলিশ কর্মীর।

পুলিশ কর্মীর এই মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলে বিক্ষোভে সামিল হলেন মৃত কনস্টেবলের সহকর্মীরা। বেশ কিছুদিন ধরেই শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন বছর ৪০ এর ওই পুলিশ কনস্টেবল, বিক্ষোভকারীদের দাবি, রবিবার তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী গড়ফা থানায় ভাঙচুর করেন, তাঁদের দাবি ওই কনস্টেবলকে আরও উন্নত চিকিৎসার জন্য বেসরকারি হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া উচিত ছিল।

বিক্ষোভকারীদের থামাতে গড়ফা থানায় ছুটে যান পদস্থ পুলিশ আধিকারিকদের একটি দল, তারপরে বিক্ষোভ উঠে যায়

বিক্ষোভরত এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, “তাঁকে গুরুতর শ্বাসকষ্ট নিয়ে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়, যদিও তাঁর মধ্যে করোনার লক্ষণ ছিল। আমি মনে করি, তাঁর আরও যত্ন হওয়া উচিত ছিল পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার আগে। কেন তাঁকে কোনও বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়নি”।

এখনও পর্যন্ত অন্তত ৭ জন পুলিশ আধিকারিকের শরীরে করোনা ভাইরাস পজিটিভ ধরা পড়েছে।

গত সপ্তাহে, এজেসি বোস রোডের পুলিশ প্রশিক্ষণ স্কুল বিল্ডিং এ বিক্ষোভ করেন প্রায় ৫০০ পুলিশ কর্মী, তাঁদের দাবি, যে সমস্ত এলাকায় বদলি করা হয়েছে, সেখানে করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শ আসার সম্ভাবনা প্রবল।

পুলিশ কর্মীদের অভিযোগ ও দাবি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়,

10