জনমত সমীক্ষায় বিপুল পিছিয়ে ট্রাম্প। তবে কি গদি হারানো শুধুই সময়ের অপেক্ষা!

গদি হারাতে চলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প! জনমত সমীক্ষায় উঠে এসেছে এরকমই তথ্য। করোনা ভাইরাসের জেরেই হারের মুখে পড়তে চলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম। এমনই তথ্য দিচ্ছে সমীক্ষা। করোনা ভাইরাসের প্রকোপ আমেরিকায় শুরু হওয়ার পর থেকেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের নাক উঁচু ভাব এবং একলা চল মনোভাব কে ভাল চোখে দেখেনি আমেরিকাবাসি। লকডাউনের ক্ষেত্রে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পর সিদ্ধান্ত; হু’র মত সংস্থার অর্থ বরাদ্দ বন্ধ ইত্যাদি ইস্যুতে ব্যাকফুটে ট্রাম্প। ট্রাম্প একাধিক বা হু কে চিনের দালাল বলে অভিহিত করে শুধু অর্থ বরাদ্ধ বন্ধ করেছেন এমন নয়; বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি মিটিং গুলোকেও এড়িয়ে গিয়েছে আমেরিকা। ট্রাম্পের এহেন সিদ্ধান্ত কে ভাল চোখে দেখেন নি মার্কিন তাবড় রাষ্ট্র নেতা তথা প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং বিলিয়নিয়ার বিল গেটস।

ওবামা ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত গুলিকে স্বার্থপরতায় ভরা বলেও মন্তব্য করেছেন। পাশাপাশি বিল গেটস হু’র অর্থ বরাদ্দ বন্ধ করার সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বলেছিলেন গোটা বিশ্বের যেখানে হু’কে দরকার সেখানে আমেরিকার দরকার নেই? হু’র বিরোধিতা করা মানে নিজের দেশের জনগনের বিপদ ডেকে আনা।খোদ মার্কিন গোয়েন্দা, গবেষক থেক বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে চিন এই ভাইরাস তৈরি করেনি এটা প্রাকৃতিক। কিন্তু কারও কোন কথায় কর্নপাত না করে চিনের ঘাড়ে দোষ চাপাতেই ব্যাস্ত থেকেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট, অন্যদিকে দেশে মৃত্যু মিছিল চলেছে।

এমতাবস্থায় এক জনমত সমীক্ষায় আমেরিকায় বিপুল জনমতে পিছিয়ে রইলেন তিনি। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স আর ইপসোস এর যৌথ জনমত সমীক্ষায় নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জো বিডেনের থেকে বিপুল ভাবে পিছিয়ে পড়েছেন তিনি।
ব্যাক্তিগত জনপ্রিয়তার নিরিখে ৪৬ শতাংশ রেজিস্টার্ড মার্কিনি ভোটার ভোট দিয়েছেন জো বিডেনের পক্ষে এবং ৩৮ শতাংশ ভোটার ভোট দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে। পাশাপাশি দক্ষ প্রশাসক হিসেবে ট্রাম্পের পক্ষে ভোট পড়েছে ৪১ শতাংশ এবং জো বিডেনের পক্ষে ৫৬ শতাংশ!নভেম্বরের ৩ তারিখ হতে চলেছে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোট ।

194