ওয়েব ডেস্ক আগস্ট ৩, ২০১৯: বান্ধবীর বিয়েতে এসে গণধর্ষিতা হল হেমতাবাদ এর দশম শ্রেণীর এক ছাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জের লাগোয়া একটি গ্রামে। অভিযোগ, বিয়ে বাড়িতে একটি ঘরে যখন ওই কিশোরী পোশাক বদল করছিল তখন ৫ যুবক ঘরে ঢুকে যায় এবং তাকে গণধর্ষণ করে। বিয়ে বাড়ির হৈ-হুল্লোড় ও গান বাজনার মধ্যে আক্রান্ত কিশোরী

আওয়াজ পৌঁছায়নি কারো কানে। পরে ব্যাপারটা জানাজানি হতেই ওই কিশোরীর বান্ধবীর মা একটি ঘরের মধ্যে তাকে তালা বন্দি করে রেখে দেয় যাতে তার মেয়ের বিয়েতে এই ঘটনা কোন প্রভাব ফেলতে না পারে। ঘটনার ভয়াবহতায় কার্যত বাকশক্তি হারিয়েছে দশম শ্রেণীর ওই ছাত্রী। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। নির্যাতিতা কিশোরীর বান্ধবীর মা ও জামাইবাবু কে এই ঘটনায় গ্রেফতার করে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। সর্বশেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী পুলিশি জেরায় দোষ কবুল করেছে বান্ধবীর জামাইবাবু। এদিকে নির্যাতিতা কিশোরীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় তাকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

19