উন্নাও ধর্ষণ কান্ডে এবার ধর্ষিতাকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল। গোটা দেশে সাড়া ফেলে দেওয়া উন্নাও ধর্ষণ কান্ডের ধর্ষিতাকে গতকাল ট্রাকের তলায় পিষে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ উঠল। রায় বেরলি জেলে বন্দি আত্মীয় মহেশ সিংয়ের সাথে দেখা করে একটি গাড়ি করে গতকাল ফিরছিলেন ঐ মহিলা। সঙ্গে ছিলেন মহেশ সিংয়ের স্ত্রী এবং উকিল মহেন্দ্র সিংহ। হঠাৎ করে একটি ট্রাক সামনে থেকে এসে তাদের গাড়িকে মুখোমুখি ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার ঐ আত্মিয়ার। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় উকিল মহেন্দ্র সিংয়ের। গুরুতর জখম হয়েছেন অভিযোগকারীনি ধর্ষিতা মহিলা। তাকে লক্ষনৌয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
গত ২০১৭ সালে উন্নাওয়ের বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেনগারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করে তৎকালীন নাবালিকা ঐ মহিলা। পুলিশ কোনো ব্যাবস্থা না নেওয়ায় মূখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বাড়ির সামনে মেয়েকে নিয়ে ধর্নায় বসে তার বাবা। সেখানে তাকে নির্মম প্রহার করে বিজেপি কর্মীরা। মূখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে অস্ত্র নিয়ে হামলার অভিযোগে ধর্ষিতার আহত বাবাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। লকআপেই মৃত্যু হয় তার। এই ঘটনায় গোটা দেশে আলোড়ন পরে যায়। এরপর জল অনেকদুর গড়িয়েছে।গ্রেফতার হয় অভিযুক্তবিজেপি বিধায়ক। কোর্টে মামলা চলাকালীন এবার অভিযুক্তকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল। যদিও এটি দূর্ঘটনা না খুনের চেষ্টা সে বিষয়ে পুলিশ এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

25