মুতাহার কামাল, মে ১৩, ২০১৯ : বিজেপি এবং তৃণমূল কংগ্রেস সাম্প্রদায়িক বিভাজনের রাজনীতি করে। প্রার্থীর ধর্মপরিচয় বড় কথা হয়না। মানুষকে মানুষ হিসেবে না দেখে হিন্দু অথবা মুসলিম হিসেবে দেখা। এ বামপন্থীদের মধ্যে নেই।আসন্ন বিধানসভা উপ নির্বাচনকে সামনে রেখে সোমবার সিপিএমের জোনাল অফিসে

সাংবাদিকদের সঙ্গে এক বৈঠকে বিরোধীদের নিয়ে এমনই মন্তব্য করেন রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের বিদায়ী সাংসদ তথা লোকসভা নির্বাচনের সিপিএম প্রার্থী মহম্মদ সেলিম। তিনি বলেন, তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে আমাদের এই লড়াই ।সেখানে প্রার্থী হয়েছেন স্বপন গুহ নিয়োগী। তিনি ইসলামপুরের সর্বোচ্চ নেতৃত্ব বলেই মনে করি। তিনি আরো বলেন, এখন চলছে দখলের রাজনীতি। এর জন্যই হয়েছে পুনঃনির্বাচন ।পঞ্চায়েত যাদের আছে তারা যেন এখন ভোট নিয়ে ভরসা হারিয়ে ফেলেছেন। গত আঠারো এপ্রিল এমন চিত্রই দেখা গেছে। আসলে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ঠিক করে মস্তান দেখে আর আমরা লড়ি মস্তানীর বিরুদ্ধে। তৃণমূল, কংগ্রেস এবং বিজেপির পাশাপাশি কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সমালোচনায় মুখর হয়ে এদিন তিনি সাংবাদিক সম্মেলনে অংশ নেন।
অন্যদিকে ইসলামপুর বিধানসভা উপনির্বাচনে বামফ্রন্ট মনোনীত সিপিএম প্রার্থী স্বপন গুহ নিয়োগীর সমর্থনে তাকে নিয়ে স্থানীয় রামগঞ্জে রোড শো’র মাধ্যমে প্রচার করেন বিদায়ী সাংসদ তথা রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী মহম্মদ সেলিম। এদিন স্থানীয় গুঞ্জরিয়াতেও ছিল তার প্রচার। দিনভর দুই এলাকায় প্রচারের পাশাপাশি এদিন রাতেও প্রচারের কথা জানিয়েছেন তিনি।এদিন রাতেও শহর জুড়ে প্রচারের কথা দলীয় সূত্রে জানা গেছে। সিপিএম সাংসদ প্রচার শুরু করবার আগেই নির্মাণ কর্মীদের নিয়ে বিধানসভা উপ নির্বাচন বিষয়ক একটি সভা করেন মহম্মদ সেলিম। মঙ্গলবার তিনি ইসলামপুরে থেকে প্রার্থীর হয়ে প্রচার চালাবেন বলে জানিয়েছেন।

43