Categories
আশেপাশের খবর রায়গঞ্জ

গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ

২৪/১/১৯, ওয়েবডেস্কঃ গণধর্ষনের শিকার হলেন এক গৃহবধূ। জানা গেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরের এক গ্যারেজ ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় কয়েক জন দুষ্কৃতি। দুষ্কৃতিরা রাতভর গণধর্ষন ও অমানবিক অত্যাচার করে। ঘটনাস্থলেই সংজ্ঞাহীন মৃতপ্রায় অবস্থায় ঐ গৃহবধূকে ফেলে রেখে যায় দুষ্কৃতিরা। ব্যবসায়ীর স্ত্রী নির্যাতিতা গৃহবধু এখনও

আচ্ছন্ন অবস্থায় উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতাল সূত্রে খবর ওই গৃহবধুর সারা শরীরে প্রচুর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। গৃহবধুর গোপনাঙ্গের ক্ষত দেখে চিকিৎসক দের প্রাথমিক অনুমান দীর্ঘ সময় ভীষণ ভাবে অত্যাচার করা হয়েছে । তার শারীরিক অবস্থা সংকটজনক বলে জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা।
নির্যাতিতার স্বামীর অভিযোগ, মঙ্গলবার রাতে গ্যারেজ বন্ধ করার সময় তিনি জানতে পারেন তার স্ত্রীকে পাওয়া যাচ্ছেনা। অনেক খোঁজাখুজির পরে পুলিশের দারস্থ হন পরিবার। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুরের নাইটি গ্রামের বাসিন্দা রঞ্জিত সিং ও তার সহযোগী ২ যুবক ছাড়াও যোগেন সিং ও গোপাল সিং এর বিরুদ্ধে হরিরামপুর থানাতে অভিযোগ জানান ধর্ষিতা মহিলার স্বামী। আজ বুধবার সকালে নাইটি গ্রাম লাগোয়া একটি জঙ্গল থেকে ওই গৃহবধুর সংজ্ঞাহীন বিবস্ত্র অবস্থায় উদ্ধার করে হরিরামপুর থানার পুলিশ। এর পরেই নির্যাতিতার পরিবারের হাতে তুলে দেয় গৃহবধুকে। নির্যাতিতার স্বামী ও মা দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছেন।

94

Leave a Reply