Categories
রায়গঞ্জ

রায়গঞ্জে আদিবাসী কিশোরী ধর্ষণ কান্ডে রায় দিল আদালত

14/22/2018, ওয়েবডেস্ক, রায়গঞ্জঃদীর্ঘ আন্দোলনের ফল পেল রায়গঞ্জ।প্রায় দেড় বছর ধরে দাঁতে দাঁত চেপে যে পরিবার গুলো লড়াই করে করে আসছিল জয় হল তাদের লড়াই।আজ ভিড়ে ঠাসা আদালত কক্ষে নয় অপরাধীর শাস্তি ঘোষনা করলেন বিচারক।উল্লেখ্য ২০১৭ সালে বিজেপির ডাকা এক জেলা বন্ধের দিন রায়গঞ্জ পুর বাসষ্ট্যান্ডে দুই আদিবাসি কিশোরি ও দুই তরুনীর গণধর্ষণ ও শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটে।তারপরই ১৪ই জুলাই ২০১৭তারিখে প্রায় ১০হাজার আদিবাসী মানুষের প্রতিবাদ মিছিল হয়

রায়গঞ্জ শহরে।

বিক্ষুব্ধ মানুষের এই মিছিল রায়গঞ্জ পাবলিক বাসষ্ট্যান্ড এবং তৎসংলগ্ন যে হোটেলে দুই আদিবাসী কিশোরীর সাথে ধর্ষনের ঘৃণ্য ঘটনা ঘটে সেই হোটেলে ভাঙচুড় চালায়। আলোড়ন পরে যায় সারা রাজ্যে।পুলিশ তিন হোটেল কর্মী সহ নয় দুষ্কৃতিকে গ্রেপ্তার করে
এদের মধ্যে নবীন শীল,শুভম প্রসাদ ও উৎপল সাহা নামে তিন দুষ্কৃতিকে আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করে।এই তিন জনের বিরুদ্ধেই পক্সো ধারায় রুজু হয় মামলা। এই ঘটনার রায়দান করেন রায়গঞ্জের মুখ্য বিচার বিভাগীয়

আদালত।

আজ শুক্রবার আদালত অভিযুক্ত নবীন শীল ও সিদ্ধার্থ নুনিয়াকে ২০বছর সশ্রম কারাদন্ড,পান্না সরকারকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে ১০বছর সশ্রম কারাদন্ড,বাপ্পা পাশোয়ান ও মুন্না রায়কে পক্সো আইনে ৫ বছর সশ্রম কারদন্ডে দন্ডিত করে।অভিযুক্ত তিন হোটেল কর্মীকে ১ বছর জেল হেপাজতেই শাস্তি সম্পূর্ণ হয়েছে বলে তাদের মুক্তি দেয়।
আজ রায় দান কালে আদালত চত্বরে ও আদালত কক্ষে মানুষের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

82

Leave a Reply