Categories
আন্তর্জাতিক

বর্ণবিদ্বেষী এই অভিযোগ তুলে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সরানো হল গান্ধীজির মূর্তি

14/12/2018, ওয়েবডেস্ক: ‘বর্ণবিদ্বেষী’ আখ্যা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সরিয়ে দেওয়া হল গান্ধীজির মূর্তি। শান্তি ও অহিংসার প্রবক্তা মহাত্মা গান্ধীর এমন অপমানে সমালোচনায় মুখর অনেকেই।

খবরে প্রকাশ ঘানার রাজধানী আক্রায় একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সরানো হয়েছে তাঁর মূর্তি। ২০১৬ সালে সেটির উন্মোচন করেছিলেন ভারতের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। স্থানীয় সূত্রের খবর, এই মূর্তি স্থাপনার পর থেকেই এটিকে নিয়ে অশান্তি শুরু হয়৷ মূর্তি সরানোর দাবি জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপক পিটিশনও ফাইল করেন৷ মহাত্মা গান্ধীকে ‘বর্ণবিদ্বেষী’ বলে অভিযোগ জানান অনেকেই৷ গান্ধীজিরই লেখা একটি বই থেকে এই বিবাদের সূত্রপাত বলে জানা যায়৷

চলতি সপ্তাহের বুধবার, গভীর রাতে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মহাত্মা গান্ধীর মূর্তি সরিয়ে দেয় আন্দোলনরত ছাত্রেরা। তারা নিজেরাই পরে এই কর্মকাণ্ডের কথা জানায়৷ তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে এই বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷ ঘানার বিদেশ মন্ত্রকের এক আধিকারিক জানান, মূর্তি সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরের ব্যাপার৷

95

Leave a Reply