Categories
জেলা

উত্তেজিত জনতা।পুলিশের ওপর হামলা।জখম ছয় পুলিশ কর্মী

২/১২/১৮,ওয়েবডেস্ক,মুতাহার কামাল:-ফের উত্তপ্ত হল চোপড়া। চোপড়া থানার লক্ষীপুর এলাকা অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল শনিবার। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি সংঘর্ষের এবং গন্ডগোলের ঘটনার পর এদিন পুলিশ অপরাধীদের ধরতে গেলে পুলিশকে বাধা দেয় এলাকার বাসিন্দারা। আর এই বিষয়টিকে কেন্দ্র করেই শুরু হয় পুলিশ জনতা খন্ড যুদ্ধ উত্তেজিত জনতা পুলিশকে লক্ষ্য করে মুহুর্মুহু ইটপাটকেল ছোড়ে এবং তাতে জখম হয় একজন মহিলা কনস্টেবল সহ মোট ছয় জন পুলিশ কর্মী জখম দের চোপরড়ার দোলুয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। শুধু যে ইট-পাথর বৃষ্টি তাও নয় গুলি এবং বোমা চলে বলেও অভিযোগ উঠে এসেছে ।জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কার্তিক মণ্ডল জানিয়েছেন,এদিন পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে পুলিশ বাধ্য হয়েই তা নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ার গ্যাস চালানো হয়। ওই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে আটক করে নিয়ে আসা হয়েছে চোপরা থানায়। শুরু হয়েছে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ। সম্প্রতি চোপড়ার বিভিন্ন ঘটনাকে কেন্দ্র করে একের পর এক লাগাতার সংঘর্ষে লক্ষ্মীপুর সহ আরো বেশ কয়েকটি এলাকা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। আর সেই ঘটনার রেশ শেষ না হতেই ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল ওই এলাকা সম্প্রতি বিভিন্ন ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকা অভিযুক্তদের চিহ্নিত করার পাশাপাশি তাদের গ্রেপ্তার করতে গেলে শনিবার প্রথমে পুলিশকে বাধা দেয় এলাকার বাসিন্দারা। এর পরেই পুলিশকে লক্ষ্য করে এলাকার বাসিন্দারা অর্থাৎ উত্তেজিত জনতা মুহুর্মুহু ইটপাটকেল ছোড়ে বলে অভিযোগ। সে সময় সেখানে বোমা এবং গুলি চালানো হয় বলেও অভিযোগ উঠে এসেছে ।যদিও গুলির খবর পুলিশের কাছে নেই বলে জানা গেছে তবে বোমা চালানো হয়েছে বলে পুলিশের কাছে সে তথ্য উঠে এসেছে। লাগাতার বিক্ষিপ্ত ঘটনার জেরে স্বাভাবিক’ পরিস্থিতি চোপড়ার রীতিমতন বিপর্যস্ত ।এদিন ঘটনার পর সমস্ত দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায় ।এলাকায় তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অবিলম্বে চোপড়ায় শান্তি ফেরানোর দাবি জানিয়েছেন এলাকার বাসিন্দাদের একাংশ।

83

Leave a Reply