Categories
অন্য খবর দেশ

নিয়ম ভেঙে নিয়মের গেরোয় ফেঁসে খোদ আধিকারিক নিজেকেই নিজে ফাইন করলেন

১৯/১১/১৮,ওয়েবডেস্ক: শিব ঠাকুরের আপন দেশে, আইন কানুন সর্বনেশে ! সেই নিয়মভঙ্গ আর রক্ষার এক আজব ঘটনার ই সাক্ষী হলো এবার দেশবাসী।আইনরক্ষার দেখভাল করার কারিগর নিজেই এবার ফাঁসলেন আইন ভাঙার অপরাধে। ঘটনাটি হায়দরাবাদের। সেখানকার ট্রাফিক পুলিশর শীর্ষ কর্তা অনীল কুমার ভুল জায়গায় গাড়ি পার্ক করে এখন রীতিমতো অস্বস্তিতে। শেষমেশ যাবতীয় নিয়ম মেনে ফাইন দিয়েই রেহাই পেয়েছেন তিনি।

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, গত বৃহস্পতিবার থানার কাছেই একটি নো-পার্কিং জোনে গাড়ি পার্ক করেন ট্রাফিক কর্তা। সেই ছবি তুলে ট্রাফিক পুলিশের কাছে পাঠিয়ে দেন পথচারীরাই। শুধু তাই নয়, ট্রাফিক কমিশনার অনিলের অধস্তন কর্মচারীদের কাছে তাঁরা একজোট হয়ে দাবি করেন যে এই কাজের উপযুক্ত ফাইন দিতেই হবে ট্রাফিক কর্তাকে। প্রবল অস্বস্তিতে পড়েন প্রশাসন।

যদিও মিডিয়ার সামনে ট্রাফিক কমিশনার বলেছেন, “মাকানকালি থানার সামনে বৃহস্পতিবার একটা কাজে গিয়েছিলাম। আমি খেয়ালই করিনি আমার গাড়ির চালক ভুল জায়গায় গাড়ি পার্ক করে ফেলেছে।” অবশেষে পথচারী এবং নিজের অধস্তন কর্মচারীদের সম্মিলিত দাবি মেনে ফাইন দিতে রাজিও হয়ে যান তিনি।

ট্রাফিক কর্তার কথায়, “আমি বলে দিয়েছিলাম আমার গাড়ি আটকে যেন উপযুক্ত ফাইন নেওয়ার ব্যবস্থা হয়। ভুল জায়গায় গাড়ি পার্ক করার জন্য আমি ইতিমধ্যেই ২৩৫ টাকা ফাইন দিয়ে দিয়েছি।”

হায়দ্রাবাদের ট্রাফিক কন্ট্রোলের সাথে যুক্ত কর্তাব্যক্তিরা যদিও এই ঘটনাটিকে তাদের নিরপেক্ষতার দৃষ্টান্ত হিসেবেই তুলে ধরতে চাইছেন। কিন্তু এলাকাবাসীর বক্তব্য তাদের সম্মিলিত দাবি এবং প্রমান দাখিল ছাড়া এই প্রশাসনিক তৎপরতা আদৌ দেখা যেত কি ?

64

Leave a Reply