Categories
প্রথম পাতা

‘তাজমহল’ অসম্পূর্ণ রেখে বেগমের পাশেই সমাধিস্থ বুলন্দশহরের শাহজাহান

ওয়েব ডেস্ক,১২/১১/২০১৮: হৃদয়ে নয় বাস্তবেই আরেকটি তাজমহল গড়ার স্পর্ধা দেখিয়েছিলে উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহর জেলার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত পোস্টমাষ্টার ফয়জুল হাসান কাদরি। ৮৩ বছরের শাজাহানের সেই স্বপ্ন সফল হবার আগেই এক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল। মর্মান্তিক এই খবর যেন হাহাকারের মত ছড়িয়ে পড়েছে উত্তরপ্রদেশে।

উল্লেখ্য যে, ২০১২ সালে এই নতুন শাজাহানের প্রতিজ্ঞার কথা জেনেছিল সারা দেশ, জেনেছিল সমগ্র বিশ্ব যখন উত্তর প্রদেশের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে ডেকে বলেছিলেন, তাঁর ইচ্ছাকে সম্মান দিতে তাঁর স্বপ্নের তাজমহল গড়ার খরচ দেবে রাজ্য সরকার। বিনয়ী কাদরি সেই সাহায্য নীরবে প্রত্যাখান করে বলেছিলেন, প্রেম মানুষের নিজস্ব অনুভূতি এখানে অন্যের কোনও ভুমিকা নেই। বরং সরকারকে তাদের গ্রামে একটি মহিলা কলেজ বানিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। কাদরির গ্রাম কেসর কালানে সেই কলেজ সমাপ্ত হয়েছে অনেকদিন আগে, চলছে পঠন পাঠনও। কিন্তু শেষ হয়নি তাজমহল গড়ার কাজ। ২০১১ সালে কাদরির স্ত্রী তাজম্মুলি বেগম মারা গিয়েছিলেন কণ্ঠনালীতে ক্যানসার হয়ে। ১৯৫৩ সালে বিয়ে হবার পর থেকে এটাই ছিল তাদের প্রথম এবং চিরবিচ্ছেদ ! তারপরেই প্রিয়তমার স্মৃতিতে মিনি তাজমহল গড়ার সিদ্ধান্ত নেন। নিজেই সেই তাজমহলের নামকরন করেন, মোকবারা ইয়াদগারা মহব্বত তাজমুল্লি বেগম।
নিজের সঞ্চিত ৬ লক্ষ টাকায় কেনেন জমি, স্ত্রীর দেড় লক্ষ টাকার গয়না বিক্রি করে শুরু হয় তাজমহলের নির্মান কাজ। এখনও অবধি খরচ হয়েছে ১৫লক্ষ টাকা। কিছুদিন আগেই ২লক্ষ টাকা দিয়ে রাজস্থানের জয়পুর থেকে আনিয়েছিলেন জয়পুরের মার্বেল পাথর। কিন্তু তারপর হঠাৎই এই দূর্ঘটনা।
গত বৃহস্পতিবার কেসর কালানেই একটি দুরন্ত গতিবেগের গাড়ী ধাক্কা দেয় কাদরিকে। ২৪ঘণ্টার লড়াই শেষে শুক্রবার হাসপাতালেই মারা যান তিনি। চিকিৎসকরা প্রানপণ চেষ্টা করেছিলেন এ যুগের শাজাহানকে বাঁচানোর কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি।
কাদরির আত্মীয়রা এবং প্রতিবেশীরা সরকারের কাছে আবেদন করেছেন তাঁর শরীরের ময়নাতদন্ত করে কাঁটাছেঁড়া না করার জন‍্য। প্রতিবেশীরা ঠিক করেছেন প্রিয়তমার কবরের পাশেই ওই তাজমহলে সমাহিত করা হবে কাদরিকে, ঠিক যেমনটা যমুনার তীরে মমতাজ মহলের পাশে শুয়ে আছেন প্রেমিক শাজাহান।
আর আরও আনন্দের খবর এটাই যে আত্মীয় প্রতিবেশীরাই দায়িত্ব নিয়েছেন ভারতের দ্বিতীয় এই তাজমহলটির কাজ সম্পূর্ণ করার।

78

Leave a Reply