১০/১১/১৮,ওয়েবডেস্কঃ
গত বৃহস্পতিবার সকালে স্ত্রী মিতাদেবীর সঙ্গে কথা হয়েছিলো দীনাঙ্করবাবুর।খোঁজ খবর নিয়েছিলেন বাড়ির সকলের।কথা ছিল বাজার থেকে ফিরে আবার কথা বলবেন পরিবারের সাথে।কিন্তু তা আর হয়নি।cisf এর যে গাড়িতে করে তিনি বাজার গিয়েছিলেন সেটি মাওবাদী হামলায় উড়ে যায় এবং দেশের আরও পাঁচ জওয়ানের সাথে মৃত্যু হয় তারও।
এদিন দীনাঙ্করবাবুর দেহ তার বাসভবনে পৌঁছলে কান্নায় ভেঙে পড়ে তার কিশোর পুত্র। পিতাকে শেষবার দেখতে চাওয়ার আবেদনে কফিনের ঢাকনা খুলে দেন সেনা কর্তৃপক্ষ। পুলিশ,বায়ুসেনা এবং cisf এর আধিকারিকরা শেষশ্রদ্ধা জানান শহিদ দীনাঙ্কর মুখোপাধ্যায়ের প্রতি। গান স্যালুট দেওয়া হয় পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে।পরে স্থানীয় নির্মল ঝিল শ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

28