২১/১০/১৮,ওয়েবডেস্ক: জলপাইগুড়ি জেলার ধূপগুড়ির নিরঞ্জনপাট এলাকায় বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে মহিলাকে গণধর্ষণের অভিযোগে দুজনকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ।

রাতভর গিলান্ডি নদীর ধারে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকার পর রবিবার সকালে অচৈতন্য অবস্থায় মহিলাকে উদ্ধার করেন এক স্থানীয় বাসিন্দা। মহিলাকে ধর্ষণের পর
মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। গোপনাঙ্গসহ শরীরের একাধিক জায়গায় আধাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। মহিলাকে ধূপগুড়ি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে রেফার করা হয়। অর্থের অভাবে ধূপগুড়ি হাসপাতালেই থাকতে হয় তাঁকে। পরে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে ধূপগুড়ি থানার পুলিশ অ্যাম্বুলান্স ভাড়া করে জলপাইগুড়ি হাসপাতালে পাঠায় তাঁকে।

জানা গেছে, জমি নিয়ে ঐ মহিলার পারিবারিক বিবাদ চলছিল। পৈত্রিক সম্পত্তির ভাগ পাইয়ে দেবে এই বলে মহিলাকে শনিবার রাতে ডেকে নিয়ে যায় দুই অভিযুক্ত।

রতনু মুণ্ডা ও পরিমল রায় নামে ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আরও কেউ যুক্ত আছে কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

14