১১/১০/১৮,ওয়েবডেস্ক: গতকাল রাজ‍্য প্রশাসনের নির্দেশে উত্তরবঙ্গের কয়েকটি জেলার সাথে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জে রিখটার স্কেলের তীব্রতা ৮ অনুযায়ী ভূমিকম্পের মকড্রিল অনুষ্ঠিত হলো। ইন্সিডেন্ট কমান্ড পদ্ধতিতে কর্ণজোড়া উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এই মকড্রিল পরিচালনা করা হয়। অতিরিক্ত জেলা শাসক ও বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত আধিকারীক উপস্থিত ছিলেন। সকাল ১০:৩৫ এ রিখটার স্কেলের তীব্রতা ৮ অনুযায়ী এই কল্পিত ভূমিকম্প হয়। সাথে সাথেই ক‍্যাম্প-৩ (রায়গঞ্জ ব্লকের খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তর) থেকে বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর, অসামরিক প্রতিরক্ষা দপ্তরের স্বেচ্ছাসেবকরা এবং এন.ডি.আর.এফ. এর পক্ষ থেকে কল্পিত ক্ষতিগ্রস্ত জনবহুল এলাকা তথা মারাইকুড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অফিস পাড়া থেকে মহারাজা জগদীশনাথ হাই স্কুল ক্ষতিগ্রস্তদের পাঠানো হয়। অপরদিকে বি.ডি.ও অফিস, মোহনবাটির শ্রীনিবাস স্টোর্স, প্রমোদাসুন্দরী বালিকা বিদ্যালয়, কল‍্যানী মোটরসাইকেল বিপনন কেন্দ্র থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের দ্রুততার সাথে সফলভাবে রায়গঞ্জ সুপারস্পশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয়। রায়গঞ্জের ক‍্যাম্প-৩ পরিচালনা করেন শ্রীমতি অনুরাধা লামা (সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারীক), শ্রী সুনিল রাহা রায় (যুগ্ম সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারীক) ও শ্রী অপূর্ব কুমার দাস (বি.ডি.এম.ও)। গতকালকের এই মকড্রিল কর্মসূচিতে মোবাইল ফোন ব্যবহার না করে ম‍্যাসেঞ্জার করা হয়েছিল। জরুরী ভিত্তিতে বিপর্যয়ের মোকাবিলার অভ‍্যাস কর্মসূচিকে সফলভাবে সম্পন্ন করায় সকলেই খুশি হয়েছে।

13