১০/১০/১৮,ওয়েবডেস্ক: জেলা সদরে আসতে হয় বিভিন্ন প্রয়োজনে, অথচ দিন গড়ালেই দুশ্চিন্তায় পরে যেতে হয় ইসলামপুর মহকুমার মানুষকে। কাউকে কাজ অসমাপ্ত রেখেই কিংবা কাউকে আবার পকেট থেকে অতিরিক্ত কড়ি খসিয়ে গাড়ি ভাড়া করে ফিরতে হয় নিজ বাসভূমে। সবসময় তা সম্ভবও হয় না সকলের পক্ষে। সব মিলিয়ে ভোগান্তির একশেষ। দীর্ঘদিন ধরেই চলে আসছে এই অবস্থা। বিকেল চারটা পাঁচটা বাজলেই ইসলামপুরের দিকে ফেরার বাস মেলা দুস্কর হয়ে পড়ে। কখনো দূরপাল্লার দু এক খানা বাসের দেখা মিললেও তাতে সিট কিংবা স্টপেজের সংখ্যা নিয়ে বাঁধে সমস্যা।

এই সব কিছুর পরিপ্রেক্ষিতেই কিছুদিন আগে রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী কে এক বৈঠকে পেয়ে তাঁদের অসুবিধার কথা জানিয়েছিলেন ইসলামপুরের কিছু সমাজসেবী মানুষ। মন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দেখবেন বিষয়টা।

অতঃপর পতিশ্রুতির সাত দিনের মধ্যেই বুধবার উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন নিগমের ইসলামপুর টার্মিনাস থেকেই রায়গঞ্জ গামী একটি বাসের উদ্বোধন করলেন এলাকার বিধায়ক কানাইয়ালাল আগরওয়াল মহাশয়। জানা গেলো বাসটি সকাল সাতটায় ইসলামপুর থেকে জেলা সদর কর্ণজোড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেবে এবং বিকেলে পাঁচটায় কর্ণজোরা থেকে ইসলামপুরের দিকে ফিরবে।

বাসের সময় সারণী জেনে ইতিমধ্যেই ইসলামপুর সহ করণদীঘি,ডালখোলা, পাঞ্জিপাড়া, ধনতলা সহ বিস্তীর্ণ অংশের মানুষের মধ্যে স্বস্তির নিঃশ্বাস পড়েছে। সকলেই এক বাক্যে স্বীকার করেছেন এর ফলে তাঁদের জেলা সদরে এসে বিভিন্ন রকম অফিসিয়াল কাজ করতে খুবই সুবিধে হবে ভবিষ্যতে। সাথে সাথেই তাঁরা বাসটি যাতে নিয়মিত চলাচল করে তার জন্যও উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন নিগম কর্তৃপক্ষকে লক্ষ রাখতে অনুরোধ করেছেন।

11