১/১০/১৮,ওয়েবডেস্ক,মুতাহার কামালঃ লোকে বলে”একটি গাছ একটি প্রাণ “। কিন্তু বাস্তবে তার বিপরীত রুপ দেখা গেল চোপড়া ব্লকে। বাগান মালিকের প্রাণ না নিতে পেরে পারলেও, প্রাণ নিল কয়েকশত তেজপাতা গাছ কেটে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানা দাসপাড়া অঞ্চলের কন্ঠিগছ গ্রামে। রবিবাদ এই অভিযোগ করলো বাগানের মালিক কলিমুদ্দিন। তিনি সকাল সকাল চা বাগানে কীটনাশক প্রয়োগ করতে গেলে দেখতে পায় তার চাগাছ ছাড়া ভিতরে একটিও তেজপাতার গাছ নেই। এবং যেখানে সেখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে গাছের অর্ধাংশ ।বাগানের মালিক কলিমুদ্দিন কে জিজ্ঞাস করে জানা গেছে, তিনি কংগ্রেস সমর্থক হওয়ার কারণে এইভাবে রাত্রে অন্ধকারে পাঁচশোরও বেশি গাছ কেটে নষ্ট করা হয়েছে তিনি এই ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।তিনি আরো জানিয়েছেন, দুই মাস আগে তিন বিঘা জমির প্রায় সাড়ে তিনশোরও বেশি গাছ নষ্ট করা হয় ঠিক এইভাবে । তিনি জানিয়েছেন, এই সমস্ত গাছ কাটার পিছনে হাত রয়েছে কিছু বহিরাগত লোকের এবং আমাদের পাড়ার কিছু টিএমসি সমর্থকের। আমি এই ব্যাপারে থানায় দুই দুবার অভিযোগ জানিয়েছি কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

10