১২/০৯/১৮, ওয়েবডেস্কঃ: আজ বুধবার স্যাট(স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল)-এর ডিভিশন বেঞ্চে মহার্ঘ্য ভাতা (ডিএ) মামলার শুনানিতে বিচারপতি সুবেশ দাস এবং রঞ্জিতকুমার বাগ-এর ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্য সরকারকে হলফনামা দিয়ে দুটি বিষয় স্পষ্ট করতে বলেছেন। এক, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতার ফারাক। দুই, দিল্লি ও চেন্নাইতে কর্মরত রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে সমান ডিএ।

২৪ সেপ্টেম্বরের মধ্যে স্যাটের কাছে এই হলফনামা দিতে হবে রাজ্য সরকারকে।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই স্যাটই ডিএ নিয়ে মামলায় সরকারের সুরে বলেছিল ডিএ সরকারের ‘দয়ার দান।’ এটা কোনও সরকারি কর্মচারীর অধিকার নয়। সরকার ইচ্ছে হলে দেবে। ইচ্ছে না হলে দেবে না। কিন্তু গত ৩১ অগস্ট কলকাতা হাইকোর্টে দেবাশিস করগুপ্ত এবং শেখর ববি সরাফের ডিভিশন বেঞ্চ স্যাটের ওই রায়কে খারিজ করে দেয়। পুনর্বিবেচনার জন্য ট্রাইবুনালে পাঠিয়ে হাইকোর্ট বলে, ডিএ দয়ার দান নয়। এটা সরকারি কর্মচারীদের অধিকার। সেই সঙ্গে ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দেয়, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীরা যে হারে মহার্ঘ ভাতা পাবেন, রাজ্য সরকারি কর্মচারীদেরও সেই এক হারে মহার্ঘ ভাতা দিতে হবে। মুদ্রাস্ফীতির হারেই ডিএ-র পরিমাণ নির্ধারণ করতে হবে সরকারকে।

7