২৮শে মে, ওয়েবডেস্কঃ অবশেষে স্বস্তি মিলল রায়গঞ্জের আন্দোলনকারী শিক্ষকদের। আজ রায়গঞ্জ জেলা আদালত কিছুটা ব্যতিক্রমী ঘটনার সাক্ষী হল। শিক্ষক ভোটকর্মী রাজকুমার রায় হত্যার প্রতিবাদে গত ১৬ই মে রায়গঞ্জে আন্দোলনকারী প্রায় ১৫০ শিক্ষকের বিরুদ্ধে মহকুমা শাসককে নিগ্রহের মামলায় পুলিশ প্রথম থেকেই আক্রমনাত্মক কৌশল নেয়। মধ্যরাতে শিক্ষকদের বাড়ি বাড়ি হানা দেওয়া ও তিন শিক্ষককে গ্রেপ্তারের ঘটনায় কিছুদিন ধরেই রায়গঞ্জে উত্তেজনার পারদ চড়েছে। এদিকে দলীয় রাজনীতির উর্ধে উঠে রাজ্য জুড়ে প্রতিবাদও চলছে শিক্ষকদের। আর এই বিষয়ে রায়গঞ্জে একটি নাগরিক কনভেনশনে যোগ দিতে আজ সকালে শহরে উপস্থিত হন বিশিষ্ট আইনজীবী শ্রী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। তিনি এসেই সবাইকে অবাক করে জানিয়ে দেন আজ রায়গঞ্জ জেলা আদালতে ধৃত শিক্ষকদের হয়ে সওয়াল করবেন তিনি। খবর ছড়িয়ে পড়তেই জেলা আদালতে বহু শিক্ষকসহ সাধারন মানুষ ভিড় করেন।

খানিকটা নাটকীয়ভাবেই শিক্ষকদের জামিন মঞ্জুর করান তিনি। শিক্ষক মহলে খুশীর মেজাজ। আপাতত স্বস্তি। যদিও এসডিও নিগ্রহ ও একগুচ্ছ জামিন অযোগ্য ধারায় মূল মামলায় জামিন হয়েছে আজ। বিকাল সাড়ে তিনটা নাগাদ আদালত সূত্রে জানা গেছে জাতীয় সড়ক অবরোধের  মামলাতেও ধৃত শিক্ষকদের জামিন মঞ্জুর হয়েছে । শিক্ষকদের জামিনের পর এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিকাশবাবু বলেন এই মামলা উচ্চ আদালতে গেলে টিকবে না। এটা একটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত মামলা। বরং তদন্তের আগেই এসডিও কিকরে একে আত্মহত্যা বললেন, তাই তার প্রশাসনিকভাবে শাস্তি হওয়া উচিত। এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে শ্রী বিকাশ ভট্টাচার্যের পাশে উপস্থিত ছিলেন রাজকুমার রায় এর স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাহিদুর রহমান ও সেভ ডেমোক্রেসি এর রাজ্য সম্পাদক শ্রী চঞ্চল চক্রবর্তী। এদিকে আন্দোলনকারী শিক্ষকরা জানাচ্ছেন এটা ঐক্যবদ্ধ শিক্ষক আন্দোলনের প্রাথমিক জয়। তাঁরা রাজকুমার হত্যার নিরপেক্ষ তদন্তের দাবীতে লড়াই চালিয়ে যাবেন। আদালত চত্বরে উপস্থিত হাজার খানেক মানুষ এদিন বিকাশবাবুকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

33